কনস্টেবল পদে মাত্র ১০৩ টাকায় চাকরি দেওয়া আলোচিত সেই পুলিশ সুপার জিহাদুল কবির চাঁদপুর থেকে বিদায় নিয়েছেন।

রবিবার (০৮ সেপ্টেম্বর) সকালে ফুলের শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় সহকর্মীরা বিদায় দিয়েছেন তাকে। এসময় জিহাদুল কবিরকে বহনকারী যান ফুল দিয়ে সজ্জিত করা হয়।

সহকর্মীরা সেই যানটিকে মোটা রশিতে টেনে পুলিশ লাইনস এর ভেতর থেকে প্রধান সড়কে নিয়ে যান। পরে সেখান থেকে বিদায় নেন জিহাদুল কবির। আগে গত শনিবার রাতে চাঁদপুরে শেষ কর্মদিবস করেন, জিহাদুল কবির। এসময় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মিজানুর রহমানের কাছে দায়িত্ব হস্তান্তর করেন তিনি।

জিহাদুল কবির এর আগে গত একবছর চাঁদপুরে পুলিশ সুপার পদে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি পাবনা থেকে চাঁদপুরে আসার আগে মাগুরা ও রাজবাড়ির পুলিশ সুপার ছিলেন।

বর্তমানে তিনি ঢাকা রেঞ্জে পুলিশের অতিরিক্ত ডিআইজি পদে উন্নিত হয়েছেন। রবিবার বিকালে বাংলাদেশ পুলিশের মহাপরিদর্শক ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী জিহাদুল কবিরকে নতুন পদের ব্যাজ পরেয়ে দেবেন।

এদিকে, সোমবার (৯ সেপ্টেম্বর) চাঁদপুরে নতুন পুলিশ সুপার পদে যোগদান করবেন মাহবুবুর রহমান। তিনি এর আগে চুয়াডাঙ্গা জেলা পুলিশ সুপার পদে কর্মরত ছিলেন।

বেশ কর্মঠ, দায়িত্বশীল এবং জনবান্ধব পুলিশ সুপার হিসেবে জিহাদুল কবির চাঁদপুরে সর্বমহলে প্রশংসা লাভ করেন। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, তার শ্বশুর পুলিশের অতিরিক্ত মহাপরিদর্শক আব্দুস সাত্তারও সততা এবং যোগ্যতাপূর্ণ ব্যক্তি ছিলেন। জিহাদুল কবিরের বাবা ছিলেন বাগেরহাটের গুণী প্রধান শিক্ষক প্রয়াত নকিব আহম্মদ আলী। এছাড়া মা আয়েশা বেগম একজন রত্মগর্ভা মা হিসেবে গত শনিবার বাংলাদেশ ইঞ্জিনিয়ার্স

ইনস্টিটিউট-ফাউন্ডেশন থেকে এই সম্মাননা লাভ করেন। গত একবছর দায়িত্ব পালন কালে পুলিশ সুপার জিহাদুল কবির জেলায় মাদক, সন্ত্রাস ও চাঁদাবাজ নির্মূলে বিশেষ ভূমিকা পালন করেন। তার সবচেয়ে আলোচিত দিক ছিল, মাত্র এক শ তিনটাকায় পুলিশ কনস্টেবল পদে শতাধিক যুবক ও যুবতীকে চাকরির সুযোগ করে দেওয়া।

আজকের পত্রিকা/আরকে