মাহমুদ উল্লাহ্‌
বিজনেস করেসপন্ডেন্ট

সম্মেলন শেষে অংশ্রগহণকারীগণ। ছবি: এসিসিএ

হিসাবরক্ষণ পেশায় দক্ষতা বৃদ্ধি লক্ষে চট্টগ্রামে এক সম্মেলন আয়োজন করে এসিসিএ বাংলাদেশ। সম্প্রতি চট্রগ্রাম বিভাগের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের অ্যাকাউন্টিং এবং ফাইন্যন্স বিভাগের শিক্ষকদের অংশগ্রহণে এই অনুষ্ঠানটি অনুষ্ঠিত হয়। সম্মেলনের শিরোনাম ‘এডুকেটরস কনফারেন্স অন ফিউচার অব লানিং-শেপিং দি অ্যাকাউন্টিং প্রফেশন’। সম্মেলনে চারটি প্রবন্ধ উপস্থাপন করা হয় যার মাধ্যমে অতিথিরা অর্থনৈতিক উন্নয়নের লক্ষ্যে অ্যাকাউন্টিং এবং ফাইন্যান্স বিষয়ক নতুন তথ্য এবং জ্ঞান সম্পর্কে জানতে পারেন।

সেইসঙ্গে কিভাবে প্রযুক্তির সহায়তায় পেশাগত জীবনে আরো বেশি দক্ষতার পরিচয় দেয়া যায় সে বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়। বক্তারা কর্মক্ষেত্রে কাজের নানা দিক নিয়ে সচেতনতা ও দিক নির্দেশনামূলক বক্তব্য দেন।

চট্টগ্রাম ক্লাবে অনুষ্ঠিত সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী। বিশেষ অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবসায় প্রসাশন অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. এ. এফ.এম.আওরঙ্গজেব। চট্রগ্রাম বিভাগের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের অ্যাকাউন্টিং এবং ফাইন্যন্স বিভাগের শিক্ষক স্টেকহোল্ডার, পার্টনার, লার্নিং পার্টনার, সদস্য, এসিসিএ বাংলাদেশের কর্মকর্তারা অন্যান্য অতিথিসহ ৩৫০ জন উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানের শুরুতে স্বাগত বক্তব্য দেন এসিসিএ বাংলাদেশের প্রধান মো. আহসানুল হক বাশার। তিনি অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণকারী সবাইকে অভিনন্দন জানান।

দিনব্যাপী অনুষ্ঠানে মোট চারটি প্রবন্ধ উপস্থাপন করা হয়। ‘ফিউচার অব লার্নিং’ সেশনে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন শুন শিং গ্রুপ বাংলাদেশ অপারেশনসের সিএফও এবং কোস্পানি সেক্রেটারি মো. কাওসার আলম। ‘ফিউচার অব অ্যাকাউন্ট্যান্সি প্রোফেশন’ সেশনে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ক্রাউন সিমেন্টের সিইও মাসুদ খান। ‘নিউ অডিট রিপোর্ট’ এবং ‘সাসটেনেবল ডেভেলপমেন্ট গোলস-এসডিজিস’ সেশনে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাকাউটিং বিভাগের প্রফেসর ড. মো. সেলিম উদ্দিন।

সেশন চেয়ার ছিলেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যাংকিং অ্যান্ড ইনস্যুরেন্স বিভাগের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. সুলতান আহমেদ, হুদা ভাসি, চৌধুরী অ্যান্ড কো এর সিনিয়ার পার্টনার এবং আইসিএবি-এর সাবেক প্রেসিডেন্ট শওকত হোসেন।

সেশন মডারেটর ছিলেন এসিসিএ বাংলাদেশের সিনিয়র বিজনেস ডেভেলপমেন্ট ম্যানেজার শাহ ওয়ালিউল্লাহ মঞ্জুর এবং এডুকেশন ম্যানেজার প্রমা তাপসী খান। অনুষ্ঠান শেষে অতিথিদের মধ্যে সনদ বিতরণ করা হয়।

আজকের পত্রিকা/এমইউ/এমএইচএস