স্লাগ নামের ছোট একটি প্রাণী। ছবি : সংগৃহীত

গত মাসে জাপানের হাই স্পিড রেল নেটওয়ার্ক অচল হয়ে যায় এবং ট্রেন চলাচল বন্ধ থাকে। অবিশ্বাস্য মনে হলেও সত্য যে, এ জন্য দায়ী করা হয়েছে স্লাগ নামের ছোট্ট একটি প্রাণীকে।

৩০ মে বৃহস্পতিবার নির্ধারিত সময়ে ট্রেন চলাচল বন্ধ থাকায় প্রায় ১২০০০ যাত্রীর গন্তব্যে পৌঁছাতে দেরি হয়। দেশের দক্ষিণাঞ্চলীয় কিউশুউ অঞ্চলে রেল কোম্পানি জেআর কিটকুশু পরিচালিত বৈদ্যুতিক লাইনগুলি বিচ্যুতি হওয়ার ফলে এমনটি ঘটে।

ঘটনাটি সকাল ৯ টা ৪০ মিনিটে ঘটে, যখন জাপানে ট্রেন যাত্রীদের প্রচুর ভিড় থাকে। যার ফলে রেল কোম্পানিটি মোট ২৬টি ট্রেন বাতিল করতে বাধ্য হয়।

জাপান দক্ষ হাই-স্পিড ট্রেনগুলির বড় নেটওয়ার্কের জন্য বিখ্যাত, যা সারাদেশে প্রতিদিন হাজার হাজার যাত্রী বহন করে।

পরবর্তীতে বৈদ্যুতিক লাইন চ্যুতির কারণ বের করার জন্যে তদন্ত করা হয়। নেটওয়ার্ক এর ইলেকট্রিক্যাল সরঞ্জামের পরিদর্শনকালে, কোম্পানির প্রকৌশলী একটি ছোট্ট  মৃত শ্লাগ লক্ষ্য করে করে। যা প্রায় ২ থেকে ৩ সেন্টিমিটার (০.৭ থেকে ১.১ ইঞ্চি) দৈর্ঘ্য।

কোম্পানির মুখপাত্রের মতে, ‘একটি বৈদ্যুতিক তারে স্পর্শ করার ফলে স্লাগটি পুড়ে মারা যায়, যা নিরবিচ্ছন্ন বৈদ্যুতিক সংযোগ পেতে বাঁধা তৈরি করে’।

তিনি আরও বলেন, ‘স্লাগটি মূলত পাওয়ার বক্সের একটি ছিদ্র দিয়ে এসেছে। আর একটি স্লাগ যে বৈদ্যুতিক বিঘ্নতা ঘটাতে তা কখনো আমি শুনিনি। তবে ভবিষ্যতে বৈদ্যুতিক সরঞ্জাম পরিদর্শন করার সময় যদি পাওয়া বক্স বা অন্য কোথাও কোনো ত্রুটি খুঁজে পাওয়া যায় তা আমরা দ্রুত সমাধান করবো’।

আজকের পত্রিকা/কেএইচআর/