বরেণ্য অভিনেতা এটিএম শামসুজ্জামানের।ছবি: সংগৃহীত

বরেণ্য অভিনেতা এটিএম শামসুজ্জামানের শারীরিক অবস্থার উন্নতি হয়েছে। ২২ মে বিকেলে তাকে হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্র (আইসিইউ) বিভাগ থেকে কেবিনে নেওয়া হয়েছে। তিনি বিছানা ছেড়ে উঠে দাঁড়াতে পারছেন বলে জানিয়েছেন তাঁর ছোট ভাই সালেহ জামান।

তিনি গণমাধ্যমনে জানান, এটিএম শামসুজ্জামানের শারীরিক অবস্থা এখন আগের চেয়ে ভালো। হাঁটা-চলা করতে পারছেন। তবে বেশ কিছু দিন বিছানায় থাকতে হবে। কয়েক দিনের মধ্যে হাসপাতাল থেকে তাকে বাড়িতে নিয়ে যাওয়া হবে। দেশবাসির কাছে দোয়া চেয়ে তিনি আরও বলেন, ‘আপনারা ভাইয়ের জন্য দেয়া করবেন তিনি যেন দ্রুত সুস্থ্য হয়ে কাজে ফিরতে পারেন।’

উল্লেখ্য, গলব্লাডার রোগে আক্রান্ত হয়ে ২৬ এপ্রিল শুক্রবার রাত ১২টার দিকে তাকে রাজধানীর আজগর আলী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ১৯৬১ সালে পরিচালক উদয়ন চৌধুরীর ‘বিষকন্যা’ চলচ্চিত্রে সহকারী পরিচালক হিসেবে কাজ শুরু করেন এ গুণী শিল্পী। প্রথম কাহিনি ও চিত্রনাট্যকার হিসেবে কাজ করেছেন ‘জলছবি’ ছবিতে।

প্রথমদিকে কৌতুক অভিনেতা হিসেবে চলচ্চিত্র জীবন শুরু করলেও অভিনেতা হিসেবে চলচ্চিত্র পর্দায় আগমন ১৯৬৫ সালের দিকে। ১৯৭৬ সালে চলচ্চিত্রকার আমজাদ হোসেনের ‘নয়নমণি’ ছবিতে খলনায়কের চরিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে আলোচনায় আসেন তিনি। রাষ্ট্রীয় সর্বোচ্চ সম্মাননা একুশে পদকসহ দীর্ঘ ক্যারিয়ারে পাঁচবারেরও বেশি জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন এ অভিনয়শিল্পী।

এটিএম শামসুজ্জামান সম্পর্কে আরও জানতে নিচের লিংকগুলো পড়ুন…

আজকের পত্রিকা/এসএ/এমআরএস