বক্তব্য রাখছেন পরিকল্পনামন্ত্রী

হবিগঞ্জ শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজের উপকরণ ক্রয়ে দুর্নীতির বিষয়ে অভিযোগ দিতে বললেন বাংলাদেশ সরকারের পরিকল্পনা মন্ত্রী।

 

শুক্রবার সকাল সাড়ে ১১টায় নবীগঞ্জ উপজেলার ইনাতগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ের উদ্যোগে আয়োজিত শিক্ষার মানোন্নয়ন বিষয়ক আলোচনা সভা ও সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এমপি এ মান্নান এমপি  উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

 

এসময় তিনি আরো বলেন, সিলেট বিভাগের উন্নয়নের জন্য আমার হাতে পাঁচশত কোটি টাকা আছে। এসব টাকার একটি অংশ জগন্নাথপুর ও দক্ষিণ সুনামগঞ্জে ব্যয় করা হয়েছে এবং বাকি টাকা বিভাগের প্রতিটি উপজেলায় পর্যায়ক্রমে ব্যয় করা হবে।

এসময় এলাকাবাসীর দাবির প্রেক্ষিতে মন্ত্রী ইনাতগঞ্জ পুলিশ ফাঁড়ির জন্য একটি গাড়ি দেওয়ার আশ্বাস দিয়ে ইনাতগঞ্জকে থানায় বাস্তবায়নের জন্য সহযোগিতার আশ্বাস প্রদান করেন। পরিকল্পনা মন্ত্রী ইনাতগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ে আসার পর প্রশাসনের একটি চৌকস দল তাকে গার্ড অব অনার প্রদান করেন। এর আগে তিনি বিদ্যালয়ে প্রতিষ্টিত জাতির জনক বঙ্গবন্ধু কর্ণারের উদ্বোধন করেন।

অনুষ্ঠান শেষে হবিগঞ্জ শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজের উপকরণ ক্রয়ে দুর্নীতির বিষয়ে সাংবাদিকদের মন্ত্রী বলেন- এ বিষয়টি আমার জানা নেই, এ ব্যাপারে সাংবাদিকদের প্রমাণসহ অভিযোগ দেয়ার পরামর্শ দেন মন্ত্রী।

তবে তিনি বলেন- দুর্নীতি করে কেউ পার পাবে না।

কুশিয়ারা নদীর ভাঙন রোধে ইতিমধ্যে একটি মেগা প্রজেক্ট হাতে নেয়া হয়েছে। আশা করি শীঘ্রই কাজ শুরু হবে।

আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন, নবীগঞ্জ বাহুবল আসনের সাংসদ গাজী মোহাম্মদ শাহ নওয়াজ মিলাদ, সুনামগঞ্জ ১ আসনের সংসদ সদস্য মোয়াľেম হোসেন রতন, সংসদ সদস্য জয়া সেন গুপ্ত, সুনামগঞ্জ ৪ আসনের সংসদ সদস্য মুহিবুর রাহমান মানিক, সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য শামীমা আক্তার খানম, নবীগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ফজলুল হক চৌধুরী সেলিম, জগন্নাথপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আকমল হোসেন, নবীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ইমদাদুর রাহমান মুকুল, সাধারণ সম্পাদক সাইফুল জাহান চৌধুরী, জগন্নাথপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রিজু।

-মতিউর রহমান মুন্না