হবিগঞ্জের লাখাইয়ে দুপক্ষের সংঘর্ষে জহিরুল ইসলাম (৩৫) নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় পুলিশসহ অন্তত ৩৫ জন আহত হয়েছেন। গুরুত্বর আহত অবস্থায় অন্তত ১৫ জনকে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

শুক্রবার (৬ জুন) উপজেলার রূহিতনশী গ্রামে সন্ধ্যা ৬ টায় শুরু হওয়া সংঘর্ষ প্রায় ঘন্টাব্যাপী চলে। নিহত জহিরুল ইসলাম ওই গ্রামের ছমেদ মিয়ার ছেলে। তবে তাৎক্ষণিক আহতদের নাম পরিচয় জানা যায়নি।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, লাখাই উপজেলার রূহিতনশী গ্রামের আমিনুল হকের সাথে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিলো একই গ্রামের শরীফ তালুকদারের। এ বিরোধের জের ধরে শুক্রবার বিকেলে দুপক্ষের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে উভয় পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এতে ঘটনাস্থলেই শরীফ তালুকদারের পক্ষের জহিরুল ইসলাম নিহত হন।

খবর পেয়ে লাখাই থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে টিয়ারসেল ও রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে সংঘর্ষ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ আনে। পরে আহতদের উদ্ধার করে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

শায়েল/আজকের পত্রিকা