এম. এ. আর. শায়েল
সিনিয়র সাব এডিটর

হবিগঞ্জে উগ্রবাদ প্রতিরোধে গণমাধ্যম কর্মীদের ভুমিকা শীর্ষক সেমিনার

হবিগঞ্জে বাংলাদেশ পুলিশের সন্ত্রাস দমন ও আন্তর্জাতিক অপরাধ প্রতিরোধ কেন্দ্র নির্মাণ প্রকল্প শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মঙ্গলবার বিকেলে  উগ্রবাদ প্রতিরোধে গণমাধ্যমের ভূমিকা শীর্ষক সেমিনার পুলিশ সুপার কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়।

দিনব্যাপী সেমিনারের উদ্বোধন করেন হবিগঞ্জের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ উল্ল্যা (বিপিএম,পিপিএম)।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফজলুল হকের পরিচালনায় এ সেমিনার শুরু হয়।

সভায় জেলার প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

সেমিনারে প্রধান অতিথি পুলিশ সুপার বক্তব্যে বলেন, সন্ত্রাস জঙ্গী দমনে ২৯ টি কওমি মাদ্রাসাসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সেমিনার করেছেন।

তিনি বলেন, তিনি হবিগঞ্জে যোগদানের আগে মামলা ছিল ২হাজার ৭শত যোগদানের পর এক বছরে মামলা দাড়িয়েছে ২ হাজার ১শ। এ বছরে মামলা কমেছে ৬শ। তিনি বলেন, জঙ্গী সংঘঠনের সদস্য বাহুবলের সাইদুর রহমানের ছেলে শামীমকে কম্পিউটার তথ্য প্রযুক্তি দিয়ে নতুন করে অনেক তথ্য সংগ্রহ করেছেন, সেই শামীম বর্তমানে কারাগারে রয়েছে।

সেমিনারে বক্তারা বলেন, বাঙ্গালি সংস্কৃতি,ইতিহাস ও ঐতিহ্যকে ধারণ করতে হবে, মৃক্তিযুদ্ধের চেতনা ও অসাম্প্রদায়িক মূল্যবোধ লালন করতে হবে। সাথে দেশপ্রেম ও দেশাত্ববোধ জাগ্রত করতে হবে।

বক্তারা আরো বলেন, বই পড়া, গান, আবৃত্তি,বিতর্ক, কিংবা খেলাধুলায় উৎসাহিত করতে হবে। সঠিক ও প্রয়োজনীয় ধর্ম শিক্ষা দেওয়া ও অন্য ধর্মকে শ্রদ্ধা করা। সাথে নৈতিকতা, মানবিকতা, সহনশীলতা ও সহাবস্থানের চর্চা করতে হবে।

সেমিনারের আয়োজন করে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম এন্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম।