মাহমুদ উল্লাহ্‌
বিজনেস করেসপন্ডেন্ট

হেলমেট বিতরণ অনুষ্ঠান। ছবি: উবার

বিশ্বের বৃহত্তম ব্যক্তিগত পরিবহন কোম্পানি উবার, সড়ক নিরাপত্তার উপর পুনরায় গুরুত্বারোপ করতে ১৫ জুলাই সোমবার ঢাকায় একটি অনুষ্ঠানে তাদের উবারমোটো চালকদের মধ্যে হেলমেট বিতরণ করেছে। বর্তমানে সড়ক নিরাপত্তার বিষয়টিকে অত্যন্ত গুরুত্বের সাথে দেখা হচ্ছে এবং পরিবহণ ব্যবস্থাতে একটি দায়িত্বশীল কোম্পানি হিসাবে উবার তার সকল স্টেকহোল্ডার ও সমাজের মধ্যে এই বিষয়ে সচেতনতা বৃদ্ধি করার তাগিদ অনুভব করছে। বাংলাদেশের ট্র্যাফিক আইন অনুযায়ী সকল যাত্রী ও চালকদের জন্য হেলমেট পরা বাধ্যতামূলক এবং উবার তাদের পক্ষ থেকে সর্বাত্মক চেষ্টা করে যেন তাদের যাত্রী ও চালকরা এই নিয়ম সব সময় মেনে চলেন।

এই পদক্ষেপটি উবারের সম্প্রতি সড়ক নিরাপত্তা প্রচারণার একটি অংশ, যা উবারের #সেফটিঅ্যাটহার্ট অঙ্গীকারকে পুনর্ব্যক্ত করে। এই উদ্যোগের উদ্দেশ্য ছিল সড়ক নিরাপত্তা এবং সড়কে চলাকালীন মৌলিক নিরাপত্তা সামগ্রী পরার গুরুত্ব সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধি করা। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডাব্লিউএইচও) অনুসারে, রাস্তায় হেলমেটের পর্যাপ্ত ব্যবহার মৃত্যুর ঝুঁকি ৪০% এবং মাথায় আঘাত পাওয়ার ঝুঁকি ৭০% পর্যন্ত হ্রাস করতে পারে।

জুলকার কাজী ইসলাম, লিড, উবার বাংলাদেশ বলেন, ‘যেহেতু বাংলাদেশ ক্রমশ উন্নয়নের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে এখানে সড়ক নিরাপত্তার ভূমিকা অপরিমেয় গুরুত্ব বহন করে। সড়ক নিরাপত্তার জটিলতার উপর আলোকপাত করতে নীতিমালাগত উদ্যোগ ও সচেতনতা তৈরি করে এমন কার্যক্রমগুলোর সমন্বয় প্রয়োজন। উবারে যাত্রী ও চালকদের নিরাপত্তার বিষয়কে সবচেয়ে বেশি প্রাধান্য দেয়া হয়। এই হেলমেট বিতরণ সচেতনতা গড়ে তুলতে এবং চালকদের সড়কে নিরাপদ থাকতে সাহায্য করবে বলে আমরা আশাবাদী।’

সড়কে চলাকালীন নিরাপত্তা নিশ্চিত করা উবারের এই মাসব্যাপী সড়ক নিরাপত্তা অভিযানটির মূল লক্ষ্য। এই অভিযানটি তৈরি করা হয়েছে এমনভাবে যেন সড়ক নিরাপত্তার প্রয়োজনীয়তা সম্বন্ধে জনসাধারণের সচেতনতা বৃদ্ধি পায় এবং সড়কে নিরাপত্তার সর্বোত্তম অনুশীলনের বিষয়ে উবারের যাত্রী ও চালকরা যেন আরও সচেতন হয়।

বিস্তারিত জানতে ভিজিট করুন উবার নিউজরুম।

আজকের পত্রিকা/এমইউ