লিঙ্গ কর্তনকারী যুবক। প্রতীকী ছবি

গোপনে অন্য যুবকের সঙ্গে প্রেম করছেন স্ত্রী এবং গোপনে তারা নিয়মিত মিলিত হচ্ছেন, এ ঘটনা কোনো স্বামীর পক্ষেই মেনে নেয়া সম্ভব নয়। তাই বলে এভাবে প্রতিশোধ নিতে হবে!

৪৯ বছর বয়সী অ্যালেক্স বোনিল্লা তার স্ত্রীর প্রেমিকের গোপনাঙ্গ ধারালো অস্ত্র দিয়ে কেটে নিয়েছেন। এই অপরাধে তাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এই নির্মম ঘটনাটি ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা অঙ্গরাজ্যে।

মঙ্গলবার গিলক্রিস্ট কাউন্টি শেরিফের কার্যালয় থেকে প্রকাশিত এক বিবৃতিতে এই খবর জানানো হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, অ্যালেক্স বোনিল্লার স্ত্রীর সঙ্গে প্রতিবেশী যুবকের পরকীয়া চলছিলো অনেক দিন ধরেই।

কয়েক মাস আগে বিষয়টি টের পেয়ে যান বোনিল্লা। মে মাসের কোনো একদিন তিনি তার স্ত্রীর সঙ্গে ওই যুবককে গোপনে সেক্স করতে দেখে ফেলেন। এরপর থেকেই তার মনে প্রতিহেংসার আগুন ধকধক করে জ্বলতে থাকে।

গত রোববার সেই প্রতিহিংসা বাস্তবায়নের সুযোগ পেয়ে যান বোনিল্লা। তিনি ওই যুবকের বাড়িতে ঢুকে অস্ত্রের মুখে তাকে দড়ি দিয়ে বেঁধে ফেলেন। তখন বাড়িতে ওই যুবক একাই ছিলো। এরপর তিনি কাঁচি দিয়ে যুবকের পুরুষাঙ্গ কেটে নেন। এরপর কাটা লিঙ্গ নিয়ে তিনি নিজের বাড়িতে চলে আসেন।

কিন্তু ঘটনা জানাজানি হওয়ার পর পুলিশ বোনিল্লাকে আটক করেছে। তার এই কর্মকাণ্ডের কারণ খুঁজে বের করতে তারা তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে। তবে পুলিশের ধারণা, স্ত্রীর সঙ্গে যৌন মিলনের প্রতিশোধ নিতেই এই কাণ্ড করেছেন বোনিল্লা।

আহত যুবককে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তবে এই ঘটনায় বোনিল্লার স্ত্রীর বক্তব্য জানা যায়নি।

সূত্র: গালফ নিউজ