সৌদিতে সেনা পাঠানোর ঘোষণা যুক্তরাষ্ট্রের

সৌদি তেল স্থাপনায় শনিবার ড্রোন হামলার প্রেক্ষিতে যুক্তরাষ্ট্র এ ঘোষণা দিয়েছে। হামলার কারণে বিশ্বের অন্যতম তেল উৎপাদনকারী দেশটির তেল উৎপাদন অর্ধেকে নেমে আসে। বিবিসি।
শুক্রবার জয়েন্ট চিফ অব স্টাফের চেয়ারম্যান জেনারেল জোসেফ ডানফোর্ডকে সঙ্গে নিয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে সৌদি আরবে সেনা মোতায়েনের এ ঘোষণা দেন মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী মার্ক এসপার। তিনি জানান, সৌদি আরব এবং সংযুক্ত আরব আমিরাত তাদের কাছে সাহায্য চেয়েছেন।

তবে তিনি জানিয়েছেন, আত্মরক্ষামূলক কৌশল হিসেবেই সৌদিতে সেনা পাঠানো হচ্ছে। তবে ঠিক কতজন সেনা মোতায়েন করা হবে তা জানাননি তিনি।

তেল স্থাপনায় ড্রোন হামলার দায় স্বীকার করে ইয়েমেনে সৌদি জোটের সঙ্গে যুদ্ধরত ইরান সমর্থিত হুথি বিদ্রোহীরা। তবে যুক্তরাষ্ট্র বলছে, হামলার নেপথ্যে আছে ইরান আর সৌদি দাবি করছে যে ড্রোন দিয়ে হামলা হয়েছে তা ইরানের তৈরি।

অবশ্য ইরান সৌদি ও যুক্তরাষ্ট্রের এ অভিযোগ অস্বীকার করেছে। ইরান হুমকি দিয়েছে, তাদের ভূমিতে হামলা হলে সর্বাত্মক পাল্টা জবাব দেয়া হবে।

শুক্রবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ইরানের ওপর সর্বোচ্চ পর্যায়ের নিষেধাজ্ঞা আরোপের ঘোষণা দিয়েছেন। ওভাল অফিসে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, ইরানের কেন্দ্রীয় ব্যাংক ও সার্বভৌম তহবিলের ওপর শিগগিরই নিষেধজ্ঞা আরোপ করা হবে।