সিফাত বিনতে ওয়াহিদ
সিনিয়র সাব-এডিটর

কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক। ছবি: সংগৃহীত

কৃষির মান উন্নয়ন ও সেবা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে ২০১৮ সালে চালু হয়েছিল কৃষি খাতের ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম ‘কৃষক বন্ধু ফোন’ এবং ‘কৃষি বাতায়ন’। তবে এই ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মটি সঠিকভাবে কার্যক্রম চালাচ্ছে কিনা, এ ব্যাপারে নিশ্চিত হতে ‘৩৩৩১’ ফোন করলেন কৃষিমন্ত্রী ড. মোহম্মদ আব্দুর রাজ্জাক।

১৯ ফেব্রুয়ারি মঙ্গলবার সচিবালয়ের নিজ কক্ষে কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক ফোন করেন এই হটলাইন নম্বরে। নিজের পরিচয় গোপন রেখে মন্ত্রী কথা বলেন মাঠ পর্যায়ের দুজন কৃষি কর্মকর্তার সঙ্গে। এ সময় মন্ত্রী ফরিদপুর জেলার উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা ও ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তার সঙ্গে কথা বলে এই সময়ে কী কী ফসল চাষ হচ্ছে, কৃষিপণ্যের মূল্য ইত্যাদি জানতে চান। তাদের তথ্য পর্যালোচনা করার পর এই ডিজিটাল সেবাকে সন্তোষজনক হিসেবেই আখ্যায়িত করেন।

সচিবালয়ে তথ্য যাচাই কালে কৃষিমন্ত্রী। ছবি: সংগৃহীত

মাঠ পর্যায়ে কৃষি সম্প্রসারণ কর্মীর সঙ্গে কৃষকের সার্বক্ষণিক যোগাযোগ, কৃষি তথ্যভিত্তিক জ্ঞানভাণ্ডার গড়ে তোলা, কৃষি গবেষণার সঙ্গে মাঠ পর্যায়ের সংযোগ সাধন এবং মাঠ পর্যায় থেকে কেন্দ্র পর্যন্ত বিবিধ প্রতিবেদন আদান-প্রদান সহজ করতে ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ দেশব্যাপী ই-কৃষি সেবা সম্প্রসারণের লক্ষ্যে ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম ‘কৃষি বাতায়ন’ ও ‘কৃষক বন্ধু ফোন সেবার উদ্বোধন করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।