জরুরি অবস্থা না মেনে নিজেদের বিক্ষোভ অব্যাহত রেখেছে দেশটির জনগণ। ছবি : সংগৃহীত

সুদানে বিক্ষোভ অব্যাহত রয়েছে। পুলিশের গুলিতে নিহত হয়েছেন অন্তত ১৬ জন এবং আহত হয়েছেন আরও ২০ জন। ১৩ এপ্রিল শনিবার এক বিবৃতিতে এই তথ্য দিয়েছেন সুদানের পুলিশ।

সুদানের পুলিশ এক বিবৃতিতে বলেছেন, ১১ এপ্রিল বৃহস্পতিবার ও ১২ এপ্রিল শুক্রবার বিক্ষোভে পুলিশ গুলি চালালে এ হতাহতের ঘটনা ঘটে।

পুলিশের মুখপাত্র হাসেম আলী বলেন, বিক্ষোভকারীরা বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি ভবনে হামলা চালিয়েছে।

দারিদ্র্যপীড়িত সুদানে বিগত তিনমাস ধরেই রুটি ও জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানোর কারণে দেশটির রাষ্ট্রপতি বশির আল-ওমরের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ শুরু হয়। বিক্ষোভকারীদের দমনে নিরাপত্তা বাহিনীর বলপ্রয়োগের কারণে উল্টো এই বিক্ষোভ রাষ্ট্রপতির পতনের দাবিতে বৃহত্তর আন্দোলনে রূপ নেয়।

১১ এপ্রিল বৃহস্পতিবার প্রেসিডেন্ট বশিরের পদত্যাগ ঘোষণা করে দেশটির সামরিক বাহিনী। এতে আনন্দে মেতে ওঠেন বিক্ষোভকারীরা। কিন্তু এই আনন্দ কিছু সময়ের জন্য ছিল। কারণ বশিরের পদত্যাগের পর ক্ষমতা নেয় দেশটির সামরিক বাহিনী।

সেনাবাহিনীকে বশিরেরই অংশ হিসেবে দাবি করে আবার বিক্ষোভ করতে থাকে আন্দোলনকারীরা। বিক্ষোভের জের ধরে দেশটিতে জরুরি অবস্থা জারি করে সামরিক বাহিনী। তবে জরুরি অবস্থা না মেনে নিজেদের বিক্ষোভ অব্যাহত রেখেছে দেশটির জনগণ।

আজকের পত্রিকা/বিএফকে/আ.স্ব/জেবি