সার্ক লিটারেচার অ্যাওয়ার্ড পেলেন কবি মুহম্মদ নূরুল হুদা। সম্প্রতি ভারতের নয়াদিল্লির ইন্ডিয়া ইন্টান্যাশনাল সেন্টারের সি ডি দেশমুখ অডিটোরিয়ামে কবিকে আনুষ্ঠানিকভাবে দক্ষিণ এশিয়ায় সাহিত্যের সবচেয়ে বড়এই সম্মাননা দেওয়া হয়েছে।

সত্য একাডেমির প্রেসিডেন্ট প্রফেসর চন্দ্র শেখর কামবারা সম্মাননা স্বারক হাতে তুলে দিয়েছেন। কবি মুহম্মদ নূরুল হুদা ছাড়াও মালদ্বীপের কবি ও গবেষক আশরাফ আলী এবং নেপালের কবি ভীষ্ম উপরেটিকে এই সম্মাননা দেওয়া হয়।

বাংলাদেশ থেকে এর আগে ২০০১ সালে একই সম্মাননা পান কবি শামসুর রাহমান। বাংলা সাহিত্যে অবদানের জন্য ২০১৫ সালে কথা সাহিত্যিক সেলিনা হোসেন এই সম্মাননা পান। বাংলাদেশের ইংরেজি সাহিত্যে অবদানের জন্য ২০১১ সালে রুবানা হককে ও ২০১২ সালে ফখরুল আলম এবং সৈয়দ মঞ্জুরুল ইসলামকে সার্ক লিটারেচার অ্যায়ার্ড দেয়া হয়।

মুহম্মদ নূরুল হুদা কবি কথাসাহিত্যিক, মননশীল লেখক, অনুবাদক, গবেষক, সাংবাদিক, কলামিস্ট ইত্যকার নানা পরিচয়ে পরিচিত তিনি। আজ আমাদের এক রেঁনেসা পুরুষ। তাঁর জীবন ও সৃষ্টি বৈচিত্র্যে ভরপুর।

আজকের পত্রিকা/সিফাত