নুরাবাদ ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান ও মসজিদের সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান
  • চরফ্যাশন উপজেলার দুলারহাট থানা জামে মসজিদের ৫লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে নুরাবাদ ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান ও মসজিদের সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমানের বিরুদ্ধে।

শুক্রবার জুমার নামাজের পূর্বে মসজিদের ৭ মাসের হিসাব দেয়ার সময় মসজিদের সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম কালু চৌকিদার প্রকাশ্যে এই অভিযোগ তোলেন।

স্থানীয় মোসল্লিদের অভিযোগ ২০১৪ সালের মে মাসে ৩ বছরের জন্যে তৎকালীন নুরাবাদ ইউপির চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান সভাপতি ও একই পরিষদের গ্রাম পুলিশ নুরুল ইসলাম কালু চৌকিদারকে সাধারণ সম্পাদক করে কমিটি করা হয়।

উক্ত কমিটির মেয়াদ আড়াই বছর অতিক্রম হলেও ক্ষমতার দাপটে সভাপতি ছিলেন মোস্তাফিজুর রহমান।

গত ১২ মে/১৯ তারিখে মসজিদের পুকুর বরাটের নামে মসজিদের হিসাব কৃষি ব্যাংক দুলারহাট শাখা থেকে ৫লাখ টাকা উত্তোলন করা হয়।

উক্ত পুকুর বরাট না করে উক্ত টাকা আত্মসাত করা হয়েছে বলে মসজিদ মুসল্লিদের অভিযোগ। মসজিদ কমিটির সাবেক সহ-সভাপতি আবদুল ওদুদ মিয়া বলেন, মসজিরদ কমিটির সভাপতি সম্পাদক মনগড়া মসজিদ পরিচালনা করেছেন।

কোন আলোচনা ছাড়াই মসজিদের টাকা উত্তোলন করে পকটস্থ করা হয়।

শুক্রবার মসজিদ কমিটি গঠনের লক্ষে স্থানীয় নুরাবাদ ইউপির বর্তমান চেয়ারম্যান আলহাজ্জ আনোয়ার হোসেন কণ্ঠ ভোটের মাধ্যমে আবদুল ওদুদ মিয়াকে সভাপতি ও দুলারহাট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অবঃ প্রধান শিক্ষক শাহাজান বিএসসিকে সাধারণ সম্পাদক করে কমিটি গঠন করা হয়।

মসজিদ কমিটির সভাপতি ও সাবেক ইউপির চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, আমি দুলারহাট জামে মসজিদের উন্নয়নের জন্যে পুকুর বরাট করার সিন্ধান্ত নেয়া হয়েছে এবং ৫ লাখ টাকা উত্তোলন করা হয়েছে।

ড্রেজারের বাবাদ ৫৫হাজার টাকা ব্যয় করা হয়েছে। বাকী টাকাও তাদেরকে দেয়া হয়েছে। তাদের কাছ থেকে টাকা উত্তোলন করে মসজিদে জমা দেয়া হবে।

-আমির হোসেন