সাপ্তাহিক ছুটির দিনে বিশেষ ক্লাস নিচ্ছেন ইবি ভিসি ড. রাশিদ আসকারী

সকাল থেকে সারাদিন ইবির প্রশাসনিক কাজে ব্যাস্ত থাকেন ইবির ভিসি প্রফেসর ড. হারুন-উর-রশিদ আসকারী (রাশিদ আসকারী)।

ইবির সর্বোচ্চ দায়িত্বে থাকার পরেও একাডেমিক কাজ অর্থাৎ শিক্ষার্থীদের ক্লাস নেওয়া তার এক প্রকার নেশা।

যদিও উপাচার্য হিসেবে ইচ্ছা করলে ক্লাস নাও নিতে পারেন তিনি। কেননা কোন বিভাগের শিক্ষক উপাচার্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করলে ক্লাস নেওয়া তার জন্য বাধ্যতামূলক নয়। এক্ষেত্রে ইবির উপাচার্য ড. রাশিদ আসকারী অনেকটা আলাদা।

প্রশাসনিক কাজ শুরুর আগে নিজ বিভাগ ইংরেজি বিভাগের ক্লাস নেওয়া নতুন কিছু নয় তার। শুধু ইংরেজি বিভাগেরই নয়, এর আগে তিনি ডেভেলপমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের ইংরেজি কোর্সের সম্পূরক শিক্ষক হিসেবেও ক্লাস নিয়েছেন তিনি। সময় পেলেই শিক্ষার্থীদের সাথে এভাবে সময় কাটাতে অর্থাৎ ক্লাস নিতে পছন্দ করেন ড. আসকারী। বৃহস্পতি ও শুক্রবার সাপ্তাহিক ছুটি থাকে ক্যাম্পাস। অথচ তিনি এ দিনেও মাঝে মধ্যে ক্লাস নেন তার বিভাগের শিক্ষার্থীদের।

বৃহস্পতিবার সকালে শতব্যস্ততাকে উপেক্ষা করে রবীন্দ্র-নজরুল কলা ভবনে মাস্টার্সের (১ম সেমিস্টার) ‘তত্বের মাধ্যমে সাহিত্য পঠন’ বিষয়ে ক্লাস নেন তিনি।

মেহরীন শোভা নামে নামে এক শিক্ষার্থী বলেন, একজন বিশ^বিদ্যালয়ের ভিসি হিসেবে শত ব্যাস্ততা থাকার পরেও তিনি আমাদের ক্লাস নেন। তার ক্লাসগুলো না করলে অনেক বিষয় অজানা থাকত। তিনি দীর্ঘ সময় ধরে ক্লাস নিলেও ক্লাস খুবই প্রাণবন্ত থাকে। সময় যে কিভাবে চলে যায় বুঝতেই পারি না।

সর্বোচ্চ দায়িত্ব পালন করেও কেন তিনি ক্লাসের প্রতি এত আগ্রহী জানতে চাইলে ভিসি প্রফেসর ড. হারুন-উর-রশিদ আসকারী এ প্রতিবেদককে বলেন, আমি প্রথমত এবং শেষসত একজন শিক্ষক। শ্রেণিকক্ষেই আমি আমার পেশাগত দায়িত্ব পালনে বেশি আনন্দ পাই। সাম্প্রতিক সময়ে আমার প্রশাসনিক কাজের চাপ অনেক বেশি বেড়েছে। এজন্য ছুটির দিন গুলোতে শিক্ষার্থীদের নিয়ে বিশেষ ক্লাস নেওয়ার চেষ্টা করছি।

এ্ইচকেজে/ইবি