মরদেহ। প্রতীকী ছবি

নওগাঁর সাপাহার উপজেলায় শয়ন ঘর থেকে জোসনা খাতুন (১৬) নামের এক গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

(১৮ অক্টোবর) শুক্রবার সকালে উপজেলার মাস্টার পাড়ার একটি ভাড়া বাসা থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনার পর থেকে নিহত গৃহবধূর স্বামী ফারুক হোসেন পলাতক রয়েছেন।

সাপাহার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল হাই বাংলানিউজকে জানান, জয়পুরহাট জেলার দোগাছি গ্রামের ফারুক হোসেন এবং তার স্ত্রী বেশ কয়েক বছর ধরে সাপাহার সদরে ফুল গাছের চারা বিক্রির ব্যবসা করতেন। ভাড়া বাসায় আসার প্রথম দিন থেকেই ফারুক তার স্ত্রী জোসনাকে সব সময় বাসার মধ্যে বন্ধ করে রাখতেন।

বৃহস্পতিবার রাতে ফারুক বাসার মালিক মোতাহার হোসেনকে ফোনে জানিয়ে দেন তার স্ত্রী ঘরের মধ্য গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। এরপর বাসার মালিক পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে গলায় ওড়না পেচানো অবস্থায় ওই গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করে।

মরদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য নওগাঁ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

-এস