আটলান্টিক সাগর

মৌরিতানিয়ার উপকূলে শরণার্থীদের বহনকারী একটি নৌকা ডুবে গেলে নারী ও শিশুসহ কমপক্ষে ৫৮ জন প্রাণ হারিয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরো বেশ কয়েকজন। দুর্ঘটনায় হতাহতরা সবাই আফ্রিকার আরেক দেশ গাম্বিয়ার বাসিন্দা।

জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থার (আইওএম) বরাত দিয়ে এ খবর জানিয়েছে কাতারভিত্তিক সংবাদ মাধ্যম আল জাজিরা।

পশ্চিম আফ্রিকার দেশগুলোর শরণার্থীরা নিয়ে প্রায়ই নৌকা করে ইউরোপের উদ্দেশে যাত্রা করে থাকে। আর এই ভয়ঙ্কর যাত্রাপথে প্রায়ই নৌ দুর্ঘটনা হয়ে থাকে।

জানা যায়, গত ২৭ নভেম্বর কমপক্ষে ১৫০ জন আরোহী নিয়ে গাম্বিয়া থেকে রওয়ানা হয়েছিল নৌকাটি। পরে এটি আটলান্টিক সাগরে মৌরাতানিয়া উপকূলে এসে ডুবে যায়। এ সময় মৌরতানিয়া কর্তৃপক্ষের সহায়তায় এর ৮৩ জন যাত্রী তীরে আসতে সক্ষম হয়েছেন। দুর্ঘটনা থেকে বেঁচে যাওয়ারা জানান, নৌকাটিতে অনেক নারী ও শিশুও ছিল।

দুর্ঘটনায় আহতদের মৌরতানিয়ার উত্তরাঞ্চলীয় শহর নৌয়াধিবৌর বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তবে আহতদের কোনো সংখ্যা উল্লেখ করা হয়নি। তবে এ ব্যাপারে গাম্বিয়া কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে তাৎক্ষণিক কোনো বিবৃতি পাওয়া যায়নি।