নতুন মুদ্রানীতি ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। ছবি : সংগৃহীত

সরকারি খাতে ঋণ প্রবৃদ্ধি ১২৫ শতাংশ সম্প্রসারন করে ২০১৯-২০ অর্থবছরের নতুন মুদ্রানীতি ঘোষণা করেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।৩১ জুলাই বুধবার বাংলাদেশ ব্যাংকের জাহাঙ্গীর আলম কনফারেন্স হলে (জুলাই- জুন) পুরো অর্থবছরের মুদ্রানীতি ঘোষণা করেন গভর্নর ফজলে কবির।এর আগে প্রতি ৬ মাস পর পর মুদ্রানীতি ঘোষণা করা হতো। এবছর থেকে বছরে একবার এটি ঘোষণা করা হবে। সরকারি খাতে দ্বিগুনেরও বেশি বাড়িয়ে মুদ্রানীতি ঘোষণা করা হলেও কিছুটা কমানো হয়েছে বেসরকারী খাতে।সেখানে ঋণ প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যমাত্রা আগের ১৬ দশমিক ৫০ শতাংশ থেকে কমিয়ে ১৪ দশমিক ৮০ শতাংশ নির্ধারন করা হয়েছে। মুদ্রানীতি ঘোষণা করেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।উলে।উল্লেখ্য সরকারি খাতে ঋণ প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যমাত্রা আগে ছিলো ১০ দশমিক ৮ শতাংশ আর নতুন মুদ্রানীতিতে ধরা হয়েছে ২৪ দমিক ৩০ শতাংশ।

আজ মুদ্রানীতি ঘোষণার সময় গভর্নরের সাথে ছিলেন, ডেপুটি গভর্নর এস এম মনিরুজ্জামান, বাংলাদেশ ব্যাংকের চেঞ্জ ম্যানেজমেন্ট পরামর্শক আল মালিক কাজমী, বাংলাদেশ ফিন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিটের (বিএফআইইউ) প্রধান আবু হেনা মোহাম্মদ রাজি হাসান, ব্যাংকিং রিফর্ম অ্যাডভাইজার এস. কে. সুর চৌধুরী, অর্থনৈতিক উপদেষ্টা মো. আখতারুজ্জামানসহ জ্যেষ্ঠ কর্মর্তারা।

৬ মাস পর পর মুদ্রানীতি ঘোষণার করায় শেয়ার বাজার সংশ্লিষ্টরা অনেকটা বিরক্ত ছিলেন এবার মুদ্রানীতি ঘোষণার মেয়াদ ক বছর করায় পুঁজিবাজারের সাথে সম্পৃক্ত সব মহল সন্তোষ প্রকাশ করেছেন।

আজকের পত্রিকা/কেএইচআর/