আসাদুজ্জামান স্বপ্ন
সিনিয়র রিপোর্টার

ব্রডকাস্ট জার্নালিস্ট সেন্টারের প্রথম সম্প্রচার সম্মেলন অনুষ্ঠানে তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ। ছবি : সংগৃহীত

আলাদা সম্প্রচার নীতিমালা ও আইন করা হবে বলে জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ। ৮ ফেব্রুয়ারি সকালে টিএসসিতে ব্রডকাস্ট জার্নালিস্ট সেন্টারের সম্মেলনে অংশ তিনি এ কথা বলেন।

তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেন, টেলিভিশন মাধ্যমকে সুরক্ষা দেয়ার জন্য সকলের সহযোগিতা দরকার। এবার নবম ওয়েজবোর্ডে টেলিভিশনকেও অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে বলেও জানান তিনি। অনুষ্ঠানে অংশ নেন স্পিকার শিরিন শারমিন চৌধুরীও। তিনি সম্প্রচারের সাথে সম্পৃক্ত সাংবাদিকরা যেন তাদের লক্ষ্যে পৌছাতে পারে সেই প্রত্যাশা করেন। এরপরই তিনি অনুষ্ঠানের শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করেন।

তথ্যমন্ত্রী আরো বলেন, ‘নবম ওয়েজবোর্ডের যখন প্রজ্ঞাপন জারি হবে, একই সঙ্গে মন্ত্রিসভা যে সম্প্রচার নীতিমালা অনুমোদন করেছে, সেটিকে আইনে রূপান্তর করতে হবে। সেটি করার পর এই মাধ্যমে যাঁরা কাজ করছেন, তাঁদের আইনগতভাবে সুরক্ষা দেওয়াটা আমাদের পক্ষে সম্ভবপর হবে। আমি জানি যে, অনেক টেলিভিশন চ্যানেলে কয়েক মাস ধরে বেতন বাকি। সেখানে সংকট আছে, আবার কোনো কোনো ক্ষেত্রে ইচ্ছারও ঘাটতি আছে। বেতন-ভাতার কারণে তারা যাতে অসুবিধায় না থাকেন, সেদিকে আমরা সবাই সম্মিলিতভাবে দৃষ্টিপাত করব।’

অনুষ্ঠানে সম্প্রচার সাংবাদিক কেন্দ্রের চেয়ারম্যান রেজোয়ানুল হক সংগঠনের কার্যক্রমসহ নানা দিক তুলে ধরেন। মূলত সদস্যদের কল্যাণমূলক কাজ ও ঝুঁকি মোকাবিলা, পেশাগত সক্ষমতা বাড়ানো, অর্থনৈতিক সক্ষমতা বাড়ানো এবং গবেষণা ও নীতি সহায়তা দেওয়াই হবে এই সংগঠনের কাজ।

সম্মেলনের উদ্বোধন করেন জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী।