২০০৮ সালের লাক্স-চ্যানেল আই সুপার স্টার প্রতিযোগিতার প্রথম রানার আপ হন সৈয়দা তাজ্জি। অভিনয় করেছেন নাটক, টেলিছবি আর বিজ্ঞাপনেও। তবে এখন পুরোপুরি থিতু হয়েছেন অস্ট্রেলিয়ায়। সেখানে মার্কেটিংয়ের ওপর পোস্ট গ্র্যাজুয়েশন করেছেন। সেখানে একটি প্রতিষ্ঠানে মার্কেটিং কনসালট্যান্ট হিসেবে কর্মরত আছেন।

সম্প্রতি তাজ্জি প্রায় দুই মাসের জন্য দেশে এসেছেন। এসেই অভিনয় করেছেন বেশকিছু ভিন্ন ধরনের কাজে। তারমধ্যে অন্যতম হলো বায়োস্কোপ অরিজিনালের জন্য নির্মিত একটি ওয়েব সিরিজ। আলফা আই প্রযোজিত এই ওয়েব সিরিজটি কলকাতার জনপ্রিয় লেখক সমরেশ মজুমদারের উপন্যাস ‘উৎসবের রাত’ অবলম্বনে নির্মিত হয়েছে। এটি পরিচালনা করেছেন সায়ান দাসগুপ্ত।

সম্প্রতি কলকাতাতে টানা নয় দিন এই ওয়েব সিরিজটির শুটিং হয়। এ প্রসঙ্গে তাজ্জি বলেন, ‘এই কাজটির বিষয়ে আলফা আইয়ের শাহরিয়ার শাকিল ভাই আমাকে অস্ট্রেলিয়াতে থাকা অবস্থায়ই বলেছিল। দেশে আসার পর কাজটি যে করা হবে, তা আগে থেকেই ঠিক করা ছিল। তবে গল্প এবং স্ক্রিপ্টের নানান বিষয় দেশে আসার পর জানতে পারি। আমি এমন একটি টিমে কাজ করতে পেরে সত্যিই মুগ্ধ। এখানে আমি মাহী চরিত্রে অভিনয় করেছি।’

ওয়েব সিরিজটিতে তাজ্জি ছাড়াও বাংলাদেশের জনপ্রিয় অভিনেতা আবুল হায়াত ও দিলারা জামান অভিনয় করেছেন। তাজ্জি দেশে এসে এই কাজটি করার আগে দেশের টিভি নাটকের জনপ্রিয় নির্মাতা মিজানুর রহমান আরিয়ানের পরিচালনায় একটি নাটকে কাজ করেছেন। সেটিও আলফা আইয়ের প্রোডাকশন। ‘বুঝ বালিকা অবুঝ বালক’ শিরোনামের এই নাটকটিতে তাজ্জির সাথে মনোজ প্রামাণিক অভিনয় করেছেন। এই কাজগুলো ছাড়াও তাজ্জি নির্মাতা গৌতম কৈরির আরো একটি নাটকে অভিনয় করাসহ বেশকিছু ফটোশ্যুট এবং ওভিসির কাজ নিয়ে বর্তমানে ব্যস্ত আছেন।

বেশ কয়েক বছর আগে স্বামীর সঙ্গে অস্ট্রেলিয়ায় পাড়ি দিয়েছিলেন ছোটপর্দার এ অভিনেত্রী। কন্যা আর স্বামীকে নিয়ে সিডনীতে সংসার করলেও কালচারাল কাজগুলো ঠিকই করে যাচ্ছেন তিনি। দেশ ছাড়লেও অভিনয়টাকে ছাড়তে পারেননি। সুযোগ পেলেই নাটক আর উপস্থাপনা করছেন।

আজকের পত্রিকা/সিফাত