তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। ছবি : সংগৃহীত

ডাকসু নির্বাচন নিয়ে বিএনপি, ঐক্যফ্রন্ট এবং ডান-বামের কোনো অপচেষ্টাই ছাত্রলীগের বিজয় ঠেকাতে পারেনি বলে মন্তব্য করেছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। ১৫ মার্চ শুক্রবার দুপুরে চট্টগ্রাম নগরীর এম এ আজিজ স্টেডিয়ামের জিমনেশিয়াম মাঠে তৃতীয় বীমা মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

ডাকসু নির্বাচন প্রসঙ্গ তুলে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘বিএনপি ও ঐক্যফ্রন্ট ডাকসু নির্বাচনকে নিয়ে ঘোলা পানিতে মাছ শিকারের চেষ্টা করছে। ডান-বাম সবাই মিলে চেষ্টা করেছিল, ছাত্রলীগকে হটিয়ে দেওয়ার জন্য, কিন্তু বাম-ডান সবাই একত্রিত হয়েও ছাত্রলীগের বিজয় ঠেকাতে পারেনি।’

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘বিএনপি ধ্বংসাত্মক কর্মকাণ্ড থেকে সাময়িক বিরতি নিলেও সুযোগ পেলেই জনগণের উপর ছোবল দেবে।’

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘ডাকসুতে যারা নির্বাচিত হয়েছে তারা শিক্ষার্থীদের রায়ের প্রতি সম্মান জানিয়ে তারা তাদের কার্যক্রম শুরু করবে আশা করি। এই নির্বাচন নিয়ে ঘোলা পানিতে মাছ শিকারের চেষ্টা করছে অনেকেই। বিএনপি বাম ডান সবাই মিলে ছাত্রলীগকে ঠেকানোর চেষ্টা করেছিল। তাদের কোন অপচেষ্টায় ছাত্রলীগের বিজয় ঠেকাতে পারেনি।’

তথ্যমন্ত্রী ডাকসু নির্বাচন প্রসঙ্গ আরও বলেন, ‘নির্বাচিতরা শপথ নেবে না –একথা বলেনি। কিছু ত্রুটি-বিচ্যুতি বাদে ডাকসু নির্বাচন ভালো হয়েছে। ডাকসুতে যারা নির্বাচিত হয়েছেন, তারা ছাত্রদের রায়ের প্রতি সম্মান দেখিয়ে তাদের কার্যক্রম শুরু করবে –এটি ছাত্রদের প্রত্যাশা বলে আমি মনে করি।’

তৃতীয় বীমা মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘গাড়ির বিমা আছে, কিন্তু চালকের থাকে না –এটা দূর করতে হবে। কারখানার জন্য বিমা হয়, কিন্তু শ্রমিকের জন্য গ্রুপ বিমা হয় না৷ আহত, অঙ্গহানি বা নিহত হলে একজন শ্রমিককে মালিকের বদান্যতার উপর নির্ভর করতে হয়। এটি দূর করতে হবে; শ্রমিকদের বিমার আওতায় আনতে হবে।’

অনুষ্ঠানে মন্ত্রী প্রধান অতিথি হিসেবে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘বিমার ক্ষতিপূরণ পাওয়ার ক্ষেত্রে অনেক সময় হয়রানির শিকার হতে হয়। বিমা কোম্পানির কিছু অসাধু কর্মকর্তা-কর্মচারীর জন্য পুরো সেক্টরের উপর বিরূপ প্রভাব পড়ুক, সেটা হতে পারে না৷ শুধু উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ নয়; আপনারা যারা বিমা কোম্পানিতে কর্মরত আছেন, তাদের অনুরোধ জানাবো, ক্ষতিপূরণ পাওয়ার ক্ষেত্রে বিমা গ্রহীতা যেন হয়রানির শিকার না হয়, সেজন্য আপনারা কাজ করবেন।’

বিমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শফিকুর রহমান পাটোয়ারীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সচিব  মোহাম্মদ আসাদুল ইসলাম, জীবন বিমা করপোরেশনের চেয়ারম্যান সেলিনা আফরোজ ও বিভাগীয় কমিশনার (চট্টগ্রাম) আবদুল মান্নান।

আজকের পত্রিকা/আ.স্ব./