সকালবেলা ভাতের বদলে আটার রুটি খান। ছবি: সংগৃহীত

জীবনযাপনে অনিয়ম এবং অনিয়ন্ত্রিত খাদ্যাভ্যাসের কারণে পেটের মেদ বাড়ে, ডায়াবেটিকস, উচ্চ রক্তচাপের মতো অসুখ হতে পারে। ফলে চিকিৎসকরা সবসময় খাদ্য নিয়ন্ত্রণে পরামর্শ দিয়ে থাকেন। পুষ্টিবিদ ও ডায়াটেশিয়ানরাও কী খাবার খাচ্ছেন এবং কখন খাচ্ছেন তার উপর গুরুত্ব দিয়ে থাকেন।

সকাল বেলার খাবার খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এই খাবারটা শারীরিক গঠন এবং রোগ প্রতিরোধের ক্ষেত্রে খুবই উপকারী। চিকিৎসকদের মতে, খাদ্য গ্রহণের নিয়ম হবে পিরামিড আকারের। অর্থাৎ দিনের শুরুতে ভারী ও পুষ্টিকর খাবার খেতে হবে। কিন্তু লো নো কার্বস ডায়েট না মেনে চলতে গিয়ে অনেকেই সকালের খাবার ঠিক মতো খান না। অনেকে সকালে অপুষ্টিকর খাবার খেয়ে পেট ভরিয়ে ফেলেন। তাই যে খাবারগুলি সকালে খাওয়া ঠিক নয়, তা জানা থাকলে আমরা শরীরচর্চায় এক ধাপ এগিয়ে যাবো।

ভাত খাবেন না

সকালে নাস্তা হিসেবে অনেকেই ভাত খান। হয়তো ভাত খেয়েই অফিসে যান। কিন্তু দিনের শুরুতেই অতিরিক্ত শর্করা শরীরের জন্য ক্ষতিকর। বরং ভাতের বদলে আটার রুটি খাওয়া অধিক উত্তম। রুটির থেকে তৈরি হওয়া গ্লাইকোজেন ভাতের তুলনায় দ্রুত গলে। সঙ্গে রাখুন টক দই, কম তেলের সবজি বা চিকেন স্যুপ ও ডিম।

তেল জাতীয় খাবার বর্জন করুন

অনেকে ছুটির দিন কিংবা অন্যান্য দিনেও সকালটা শুরু কড়ে তেলে ভাঁজা পরোটা দিয়ে। কিন্তু ময়দায় ফাইবার খুব কম থাকে এবং ফ্যাট জমার সম্ভাবনাও অনেক বেশি। বরং এসবের বদলে সকালে দুধের সঙ্গে ওটস খেতে পারেন। এতে পেটও ভরবে আবার পুষ্টিগুণও পাবেন।

পাউরুটি খাবেন না

সকালে অনেকে পাউরুটি, টোস্ট, চা, কফি ইত্যাদি খেতে পছন্দ করেন। কিন্তু এতে তেমন একটা পুষ্টিগুণ নেই। কফি বা ময়দার পাউরুটি কোনোটাই শরীরের জন্য খুব একটা উপকারি নয়। বরং পাউরুটি হজমের সমস্যা করে, ফ্যাট বাড়ায়। তবে পাউরুটি খেতে চাইলে মাখন দিয়ে মাখিয়ে ব্রাউন ব্রেড খেতে পারেন। সাথে রাখতে পারেন টক দই।

বাইরের ফলের রস না খাওয়া

সকালে কিনে আনা ফলের রস খাওয়া যাবে না। প্রয়োজনে বাড়িতেই জুস তৈরি করে নিন। সবচেয়ে ভালো হয় যদি শুধু ফল খেতে পারেন। বাজারের ফলের রস শরীরের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর।

এছাড়া প্যানকেক, পেস্ট্রি, কেক, চিপস এসব খাবার মোটেই স্বাস্থ্যকর নয়। অতিরিক্ত চিনি, লবণ, তেল ইত্যাদি এসব থাকায় এগুলো সকালের খাবার থেকে একেবারেই বাদ দিন। চা, কফি দিনের অন্য সময় খেতে পারেন কিন্তু সকালে খাবেন না।

আজকের পত্রিকা/সিফাত