সেলিনা ইসলাম এমপি বক্তব্য রাখছেন।

সামগ্রিক উন্নয়ন করতে হলে সকলের সহায়তা প্রয়োজন। এলাকার জনগণের স্বার্থে সকলকে মিলে মিশে কাজ করতে হবে। তাই সকলের সমন্বয়ে লক্ষ্মীপুর-২ আসনের উন্নয়ন সম্ভব বলে মন্তব্য করেছেন সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য কাজী সেলিনা ইসলাম (সিআইপি)। তিনি লক্ষ্মীপুর-২ আসনের সাংসদ কাজী শহিদ ইসলাম পাপুলের সহধর্মীনি।

১৪ অক্টোবর সোমবার সন্ধ্যায় জেলা আওয়ামী লীগের অস্থায়ী কার্যালয়ে সদর উপজেলার ৯টি ইউনিয়নের জনপ্রতিনিধি, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি-সম্পাদক, যুবলীগ ও ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের নিয়ে সমন্বয় সভায় এমপি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, আমরা জনগণের স্বার্থ নিয়ে কথা বলবো। উন্নয়নের কথা বলবো। কারোর উপর কর্তৃত্ব খাটাতে নয়। তাই সমন্বয় ঘটিয়ে এ এলাকার জনগণের স্বার্থে আমাদের কাজ করে যেতে হবে।

তিনি আরও বলেন, পূর্বের এমপি বা জনপ্রতিনিধিরা কি করেছেন তা দেখার বিষয় নয়। বর্তমানে কি হবে তা নিয়ে ভাবুন। আমরা নিতে আসেনি, আপনাদের দিতে এসেছি। প্রধানমন্ত্রীর উন্নয়নের ভাগিদার হতে এসেছি। তাই আপনাদের এলাকার রাস্তা-ঘাট, ব্রিজ, কালভার্ট সহ যেকোনো সমস্যার জন্য আমার সাথে সরসরি যোগাযোগ রাখবেন।

এমপি সাংবাদিকদের উদ্দেশ্য বলেন, আপনারা এলাকার সমস্যা, সম্ভাবনা নিয়ে পত্রিকায় লেখেন। তাহলে আমাদের উন্নয়ন বা বরাদ্ধ দিতে সুবিধা হবে। এসময় লক্ষ্মীপুরবাসীর উন্নয়নে সাংবাদিক সহ সকলের সহযোগিতা কামনা করেন সংরক্ষিত মহিলা আসনের এ সাংসদ।

লক্ষ্মীপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য কাজী শহিদ ইসলাম পাপুলের লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি আদনান চৌধুরীর পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এ কে এম সালাহ উদ্দিন টিপু, পাবর্তীনগর ইউপি চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা সালাহ উদ্দিন ভূঁইয়া, দালালবাজার ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা নুরুজ্জামান মাষ্টার, কেন্দ্রীয় তাঁতীলীগের কার্যকরী কমিটির সদস্য জাকির হোসেন ভূঁইয়া আজাদ, রায়পুর পৌর আওয়ামী লীগের আহবায়ক কাজী জামশেদ কবির বাক্কী বিল্লাহ, চররুহিতা ইউপি চেয়ারম্যান হুমায়ুন কবির পাটওয়ারী, শাকচর ইউপি চেয়ারম্যান তাফাজ্জল হোসেন চৌধুরী টিটু, জেলা পরিষদের সদস্য মাহবুবুল হক মাহবুব, সাখাওয়াত হোসেন আরিফ প্রমুখ।

মো: সোহেল রানা/লক্ষ্মীপুর