অতিথিবৃন্দ আন্তঃবিভাগ ব্যাডমিন্টন, টেবিল টেনিস ও বাস্কেটবল প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন।

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. হারুন-উর-রশিদ আসকারী বলেছেন, যুগের সাথে তাল মিলিয়ে সংস্কৃতি চর্চায় এগিয়ে যাচ্ছে ইবি। আমাদের গবেষণা, লেখাপড়া, খেলাধুলা এবং সংস্কৃতি চর্চায় যত সাফল্য আছে তার মধ্যে সেরা সাফল্য নিয়ে এনেছে আমাদের খেলোয়াড়রা।

মঙ্গলবার দুপুরে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের আয়োজনে ৬ মাসব্যাপী আন্তঃবিভাগ ব্যাডমিন্টন, টেবিল টেনিস ও বাস্কেটবল প্রতিযোগিতা ২০১৮-১৯’র পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় দেশের একটি অন্যতম সেরা বিদ্যাপীঠ হিসেবে নানা ভাবে নিজেকে বিকশিত করে চলেছে। তাই খেলোয়াড়দের নিয়ে আমরা গর্বিত। বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ যেমন প্রতিদিন, প্রতিমাসে, প্রতিবছর নতুন নতুন চমক দেখাচ্ছে। তারই ধারাবাহিকতা অব্যহত রয়েছে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়েও।

বছরব্যাপী বিভিন্ন আয়োজনের মধ্যদিয়ে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বার্ষিকী ২০২০ “মুজিববর্ষ” উদ্যাপন করা হবে।

উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. শাহিনুর রহমান সভাপতিত্বে ও শারীরিক শিক্ষা বিভাগের সহকারী পরিচালক মাবিলা রহমানের স ালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন কোষাধ্যক্ষ প্রফেসর ড. সেলিম তোহা ও শারীরিক শিক্ষা বিভাগের পরিচালক ড. মোহাম্মদ সোহেল।

এসময় অতিথিবৃন্দ আন্তঃবিভাগ ব্যাডমিন্টন, টেবিল টেনিস ও বাস্কেটবল প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন।

এইচ কে জীবন/ইবি