বোমা হামলার ঘটনায় জড়িতদের মধ্যে একজন অস্ট্রেলিয়া এবং ব্রিটেনে পড়াশোনা করেছেন। ছবি: সংগৃহীত

শ্রীলঙ্কায় ২১ এপ্রিল রবিবার ইস্টার সানডে উদযাপনের সময় গির্জা ও হোটেলে ভয়াবহ বোমা হামলার ঘটনায় শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ৩৫৯ জন নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। আহত হয়েছেন ৫০০ জনেরও বেশি মানুষ।

শ্রীলঙ্কার প্রতিরক্ষামন্ত্রী রুয়ান উইজেওয়ারডেন জানিয়েছেন, ২১ এপ্রিল রবিবার ইস্টার সানডে উদযাপনের সময় গির্জা ও হোটেলে ভয়াবহ বোমা হামলার ঘটনায় জড়িতদের মধ্যে একজন অস্ট্রেলিয়া এবং ব্রিটেনে পড়াশোনা করেছেন। আইএসের কর্মকাণ্ড থেকে উৎসাহিত হয়ে এবং জঙ্গিদের অর্থায়নে এই হামলা চালানো হয়েছে বলে উল্লেখ করেন তিনি।

প্রতিরক্ষামন্ত্রী আরও বলেন, ‘আমাদের ধারণা আত্মঘাতী হামলাকারীদের একজন ব্রিটেনে লেখাপড়া করেছেন। পরে তিনি অস্ট্রেলিয়া থেকে স্নাতকোত্তর অর্জন করেন। এরপরেই শ্রীলঙ্কায় স্থায়ীভাবে বসবাস শুরু করেন।’

এছাড়াও যে আটজন আত্মঘাতী হামলাকারীকে এখন পর্যন্ত শনাক্ত করা হয়েছে, তাদের মধ্যে দুই ভাই রয়েছেন, যারা কলম্বোর এক ধনী মসলা ব্যবসায়ীর সন্তান। আবার শ্রীলংকার একটি পরিবার এই হামলার সাথে জড়িত ছিল, যারা মিলিওনিয়ার বা কোটিপতি।

প্রতিরক্ষামন্ত্রী রুয়ান উইজেওয়ারডেন নিশ্চিত করেছেন, আত্মঘাতী হামলাকারীদের বেশিরভাগেরই বিভিন্ন দেশের সঙ্গে সম্পৃক্ততা ছিল। তাদের মধ্যে অনেকেই বিদেশে বসবাস করছিল বা সেখানে পড়াশোনা করেছে। এছাড়াও আত্মঘাতী হামলাকারীদের ওই দলটির বেশিরভাগই শিক্ষিত এবং তারা মধ্যবিত্ত বা উচ্চ মধ্যবিত্ত পরিবারের। তারা অর্থনৈতিকভাবে স্বচ্ছল এবং তাদের পারিবারিক অবস্থাও ভালো বলে ধারণা করা হচ্ছে।

আজকের পত্রিকা/বিএফকে/সিফাত