স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, মেডিকেল কলেজে যাঁরা পড়েন, তাঁরা মেধাবী। মেধার কারণে তাঁরা হয় তো দক্ষ চিকিৎসক হতে পারবেন। তবে ভালো চিকিৎসক হতে হলে আগে ভালো মানুষ হতে হবে। কারণ, মানবসেবাই বড় ধর্ম।

মঙ্গলবার বিকেলে তার পিতা সাবেক মন্ত্রী ও ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র কর্ণেল (অব.) এম এ মালেকের ১৯তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে মানিকগঞ্জ কর্ণেল মালেক সরকারি মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মিলনায়তনে আয়োজিত স্মরণসভায় তিনি এসব কথা বলেন।

এতে মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ আখতারুজ্জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এই স্মরণসভায় আরও বক্তব্য দেন পুলিশ সুপার রিফাত রহমান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) বাবুল মিয়া, জেরা হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. আব্দুর আওয়াল, সিভিল সার্জন ডা. আনোয়ারুল আমিন আখন্দ, মানিকগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট আবদুল মজিদ ফটো, মেডিক্যাল কলেজের অধ্যাপক ডা. আনিসুজ্জামান, সহযোগি অধ্যাপক ডা. আহসানুল হক, মানিকগঞ্জ ডায়াবেটিক সমিতির সাধারন সম্পাদক সুলতানুল আজম খান, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক সুদেব কুমার সাহা, কলেজের শিক্ষার্থী জান্নাতুল ফেরদৌসী অন্তরা ও অলি আহমেদ।

মানিকগঞ্জ সদরের দিঘী গ্রামে কর্ণেল মালেক সরকারি মেডিকেল কলেজ নি্র্মিত হচ্ছে। আগামী এক বছরের মধ্যে কর্ণেল মালেক মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের নির্মাণ কাজ শেষ হবে বলে জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

তিনি বলেন, মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের কার্যক্রম চালু হলে স্বাস্থ্যসেবার জন্য জেলাবাসীকে ঢাকায় কিংবা দেশের বাইরে যেতে হবে না। এখানেই জটিল ও কঠিন রোগের চিকিৎসাসেবা পাবেন রোগীরা।

শাহজাহান বিশ্বাস/মানিকগঞ্জ