মানিকগঞ্জের শিশু সমাবেশে শাহীনা আক্তার

মানিকগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোসাম্মৎ শাহীনা আক্তার বলেন, জাতিসংঘের শিশু সনদে উল্লেখিত অনুচ্ছেদে শিশুদের যেসব অধিকারের কথা বলা হয়েছে তার অধিকাংশই প্রতিপালন করতে কোন অর্থ ব্যয় হয়না। এসব প্রতিপালনের জন্য দরকার মানসিকতা ও দৃষ্টিভঙ্গির পরিবর্তন।

বৃহস্পতিবার সকালে মানিকগঞ্জে জেলা প্রশাসন ও শিশু একাডেমী কর্তৃক আয়োজিত শিশু সমাবেশ ও আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যদানকালে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, সারাদিন ঘরের বাইরে থেকে যখন একজন পিতা-মাতা ঘরে ফিরেন, তখন তার শিশু সন্তানটি আগ্রহ ভরে তাদের কাছে যায়। চায় সান্নিধ্য এবং আদর-ভালবাসা। কিন্তু কয়জন অভিভাবক তাদের সেই চাওয়াটাকে গুরুত্ব দেয়-এমন প্রশ্ন তুলেন অভিভাবকদের কাছে। তিনি বলেন, অভিভাবকরা ইচ্ছে করলেই তার সন্তানকে আদর, ভালবাসা দিতে পারেন। বাড়ির আশেপাশে একটু ঘুরে আসতে পারেন।

শিশুদের বিকাশের কথা চিন্তা করে তাদের চাহিদা অনুযায়ী জেলা পর্যায়ে শিশু পার্ক ও খেলার মাঠ তৈরীর পরিকল্পনা সরকারের আছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, শিক্ষার পাশাপাশি শিশুদের ক্রীড়া ও সংস্কৃতির সাথে সম্পৃক্ত করতে হবে। তাদের নৈতিক শিক্ষা দিয়ে আলোকিত মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। আর এই দায়িত্ব নিতে হবে সকলকে।

জেলা প্রশাসনের সম্মেলন কক্ষে বিশ্ব শিশু দিবস ও শিশু অধিকার সপ্তাহ উপলক্ষে আয়োজিত এই সমাবেশে স্বাগত বক্তব্য রাখেন শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা মো. শরিফুল ইসলাম। অন্যান্যের মধ্যে আরো বক্তব্য দেন জেলা উপানুষ্ঠানিক কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক নিখিল কর্মকার, শিশু সংগঠক ও সাংবাদিক জাহাঙ্গীর আলম বিশ্বাস, খান বাহাদুর আওলাদ হোসেন খান কলেজের প্রভাষক রুহুল জামার সুজন, স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন দিশারীর সভাপতি হাসান শিকদার, সাংগঠনিক সম্পাদক স্বপন মিয়া, শিশু একাডেমীর আবৃত্তি বিভাগের শিক্ষার্থী সাইদা সালিহা ও তানিসা জান্নাত তন্বী।

এই সমাবশে অংশ নেয় সরকারী শিশু পরিবার, দিশারী প্রি-প্রাইমারী, শিশু একাডেমী, ন্যাশনাল চিল্ড্রেন টাস্ক ফোর্স (এনসিটিএফ)-এর শিশুর ও অভিভাবকসহ শিশু একাডেমীর বিভিন্ন বিষয়ের প্রশিক্ষকবৃন্দ।

শাহজাহান বিশ্বাস/মানিকগঞ্জ