এফডিসিতে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির কার্যালয়ে অপমানিত হয়েছেন জনপ্রিয় নায়িকা মৌসুমঈ। এমনটাই অভিযোগ করেছে নায়িকা নিজে।

আগামী ২৫ অক্টোবর বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন। এই নির্বাচন নিয়ে শিল্পীদের মধ্যে রয়েছে পাল্টাপাল্টি অভিযোগ। ফলে বেশ কয়েকদিন ধরেই থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে এফডিসিতে। নির্বাচিনে সভাপতি পদে মিশা সওদাগরের বিপরীতে স্বতন্ত্রভাবে লড়ছেন মৌসুমী। নির্বাচনী প্রচারণার মধ্যেই সোমবার তাকে অপমান করা হয় বলে অভিযোগ করেছেন মৌসুমী।

মৌসুমী ঘটনার বর্ণনা দিয়ে বলেন, ‘আমি প্রচারণার জন্য এফডিসিতে ছিলাম। আমাকে শুভ কামনা জানাতে আমার এক বড় আপা এবং কয়েকজন ভক্ত ফুল নিয়ে শুভেচ্ছা জানাতে এফডিসিতে আসেন। তারা সমিতিতে আমার সাথে সেলফি তুলে চলে যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। ঠিক ওই সময় ড্যানিরাজ ঔদ্ধত্যপূর্ণ আচরণ করেন। আমার ভক্তদের সাথে বাজে ব্যবহার করেন। তাদের সামনে আমাকে অপমান করেন। আঙুল তুলে আমাকে বলেন, ‘হু আর ইউ?’

তারা চাইছে একটা ঝামেলা বাধাতে। যেন নির্বাচন বানচাল হয়ে যায়। আমি নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়াই। এ সময় সভাপতি মিশা সওদাগরও উপস্থিত ছিলেন। তিনি কিছুই বলেননি।

ক্ষোভ নিয়ে মৌসুমী বলেন, ‘এতদিন ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ করে একজন শিল্পীর কাছ থেকে এ ধরনের ব্যবহার আশাই করা যায় না।’

এ সময় সভাপতি মিশা সওদাগর উপস্থিত ছিলেন এবং তিনি কিছুই বলেননি বলে দাবি করেন মৌসুমী।

তবে মৌসুমীকে লাঞ্চনার অভিযোগ অস্বীকার করেছেন সমিতির বর্তমান সভাপতি মিশা সওদাগর। তিনি বলেন, ‘এমন কোনো ঘটনাই ঘটেনি। কিছু লোক সমিতিতে এসে অনেকক্ষণ বসে ছিলেন। এটা নিয়েই কিছুটা বিশৃঙ্খলা দেখা দেয়। তবে আমার সামনে ধাক্কা দেওয়ার ঘটনা ঘটেনি।’