শিক্ষার্থীকে পেটালেন বেরোবির সাবেক ছাত্রলীগ নেতা

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগের সাবেক নেতা মাহমুদুল ইসলাম জয়ের বিরুদ্ধে আবারো এক শিক্ষার্থীকে পেটানোর অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় রংপুর মেট্রোপলিটন তাজহাট থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন ভুক্তভোগি শিক্ষার্থী রায়হান কবির।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, গত ২৭ সেপ্টেম্বর রাত আনুমানিক ১০টায় বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মাহমুদুল হাসান জয় এবং আরেক নেতা আবুল কালাম আজাদ শহীদ মুখতার এলাহী হলে অভিযোগকারী রায়হান কবীরকে তার রুম থেকে ডেকে বাইরে নিয়ে গিয়ে অনৈতিকভাবে চাঁদা দাবী করেন।

এসময় রায়হান চাঁদা দিতে অস্বীকার করলে তাকে মারধর করা হয়। আগামী ২দিনের মধ্যে টাকা না দিলে তাকে হল ছাড়ার হুমকিও দেন মাহমুদুল হাসান জয়।

এবিষয়ে জানতে চাইলে অভিযুক্ত ছাত্রলীগ নেতা মাহমুদুল ইসলাম জয় বলেন, আমি চাঁদা দাবি করিনি। সে সিনিয়রদের সাথে বেয়াদবি করেছে তাই তাকে চড়-থাপ্পর মেরেছি, তাকে শাসন করেছি। সেখানে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি তুষার কিবরিয়া ও হল ছাত্রলীগের সভাপতি হাসান আলী সেখানে উপস্থিত ছিলেন।

এবিষয়ে জানতে চাইলে হল শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি হাসান আলী বলেন, সেদিন ভুল বোঝাবুঝি হয়েছিল। আমরা মীমাংসা করার চেষ্টা করছি।

বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি তুষার কিবরিয়া বলেন, বিষয়টি ছোটো। ভুল বোঝাবুঝি হয়েছিল। মীমাংসার চেষ্টা চলছে।

অভিযোগের বিষয়ে রংপুর তাজহাট থানার ওসি শেখ রোকন বলেন, একটি অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এর আগেও বিভিন্ন সময় শিক্ষার্থীদের পেটানোসহ বিতর্কিত কর্মকান্ডের মাধ্যমে সমালোচিত হয়েছিলেন ছাত্রলীগ নেতা জয়। তার বিরুদ্ধে চাঁদাবাজি, সাংবাদিক লাঞ্চিত, শিক্ষককে গালাগালি করাসহ বিভিন্ন অভিযোগ রয়েছে। তিনি অন্তত দুটি মামলার আসামী বলে পুলিশ সূত্রে জানা গেছে।

জাকির হোসাইন/বেরোবি