মা দিবসে সন্তান জন্ম দেওয়া নেহাতই কাকতালীয় বলে জানিয়েছেন শর্মিলার চিকিৎসক। ছবি: সংগৃহীত

মণিপুরের সেই ‘লৌহমানবী’ ইরম চানু শর্মিলা ১২ মে রবিবার ভারতের বেঙ্গালুরুর একটি বেসরকারি হাসপাতালে যমজ কন্যা সন্তানের জন্ম দিয়েছেন। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ গণমাধ্যমে জানিয়েছে, এক মিনিটের ব্যবধানে ডেসমন্ড-শর্মিলার যমজ কন্যা নিক্স সখী ও অটম তারা স্থানীয় সময় সকাল ৯টা ২১ মিনিটে ভূমিষ্ঠ হয়।

তবে মা দিবসে সন্তান জন্ম দেওয়া নেহাতই কাকতালীয় বলে জানিয়েছেন শর্মিলার চিকিৎসক। তিনি আরও জানিয়েছেন, মা ও দুই শিশু সুস্থ আছে। খুব শিগগিরই বাচ্চাদের ছবি প্রকাশ করা হবে।

মণিপুরের উত্তর-পূর্বের বাসিন্দাদের মানবাধিকারের দাবিতে দীর্ঘদিন আন্দোলন করেছেন শর্মিলা। টানা ১৬ বছর অনশনও করেছেন তিনি। ২০১৬ সালের ৯ আগস্ট দীর্ঘ ১৬ বছরের অনশন তিনি সরকারিভাবে ভাঙেন। যোগ দেন রাজনীতিতে। নির্বাচনেও দাঁড়িয়েছিলেন। পরের বছর ২০১৭ সালে দীর্ঘদিনের ব্রিটিশ বন্ধু ডেসমন্ড কুটিনহোকে বিয়ে করেন চানু শর্মিলা।

শর্মিলার এই দীর্ঘ অনশনে প্রচুর বাধা এসেছিল। মণিপুর প্রশাসনের জোর-জবরদস্তিতে তাকে নার্সিংহোমেও ভর্তি করা হয়েছিল। মুখে নল ঢুকিয়ে তাকে জোর করে খাওয়ানোর চেষ্টাও করা হয়েছে। হাসপাতালের বেডে নাকে টিউব লাগানো শর্মিলার ছবি বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ে। শর্মিলার ১৬ বছরের অনশন জায়গা করে নিয়েছিল গিনেজ বুকে।

আজকের পত্রিকা/বিএফকে।সিফাত