নিহতের বাড়িতে লোকজনের ভিড়

লালমনিরহাট সদর উপজেলার কুলাঘাট ইউনিয়নে লিপি বেগম (২৫) নামে ৯ মাসের গর্ভবতী এক গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

বুধবার (১৯ জুন) দুপুর ১২টার দিকে সদর উপজেলার কুলাঘাট ইউনিয়নের পুর্ব হাতুরা গ্রামে নিজ ঘরে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত লিপি বেগম ওই গ্রামের আতিকুল ইসলামের স্ত্রী ও একই ইউনিয়নের নেছাব আলীর মেয়ে। তাদের ৭ বছরের একটি পুত্র সন্তানও আছে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী স্বামী আতিকুল ইসলাম জানান, প্রতিদিনের মতো আজো তার স্ত্রী সকালে উঠে এবং বাড়ির কাজকর্ম করে। ১১টার পর অনেক্ষন তাকে না দেখার কারনে অনেক খোজাখুজি করা হয়। পরে তাদের ঘরের দড়জা বন্ধ দেখে তাকে ডাকা হয়। অনেক্ষন তার কোন সারা শব্দ না পেয়ে আশপাশের লোকজন এসে ঘরের দরজা ভেঙ্গে ভিতরে প্রবেশ করলে ঘরের ধরনায় প্লাস্টিকের রশির মধ্যে লিপির ঝুলন্ত মরদেহ দেখতে পায়।

পরে থানা পুলিশকে খবর দিলে থানা পুলিশ এসে লিপির মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় ওই এলাকায় শোকের মাতম চলছে।

নিহত লিপি বেগমের স্বামী আতিকুল আরো বলেন, তার স্ত্রী লিপির শরীরের বিভিন্ন স্থানে চুলকানী জাতীয় অসুখ ছিল। এজন্য সে প্রায় একা একা কাদতো। চিকিৎসাও চলছে, এর মধ্যেই সে এ ঘটনা ঘটালো।

লালমনিরহাট সদও থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মাহফুজ আলম বলেন, খবর পাওয়ার পর পরই ঘটনা স্থলে অফিসার পাঠিয়ে লাশ উদ্ধার করে মর্গে নিয়ে আসা হয়েছে।

জিন্নাতুল ইসলাম জিন্না/লালমনিরহাট