জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ উপলক্ষে সংবাদ সম্মেলন ও মতবিনিময় অনুষ্ঠানে তিনি এ তথ্য জানান

লালমনিরহাটে ১০৭ হেক্টর পুকুরের প্রায় ৪ কোটি টাকার মাছ বন্যার পানিতে ভেসে গেছে বলে জানিয়েছেন জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোহাম্মদ ফারুকুল ইসলাম।

বুধবার (১৭ জুলাই) দুপুরে লালমনিরহাট জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ উপলক্ষে সংবাদ সম্মেলন ও মতবিনিময় অনুষ্ঠানে তিনি এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, লালমনিরহাট জেলায় সৃষ্ট বন্যায় জেলার ১০৭ হেক্টর পুকুরের প্রায় ৪ কোটি টাকার মাছ পানিতে ভেসে গেছে। জেলায় মাছের চাহিদা প্রায় ২৯ হাজার মেট্রিক টন। এর বিপরীতে উৎপাদনও প্রায় সমান। জেলায় মাছের ঘাটতি নেই বলে চলে। এরপরেও তিনি জেলার সকল খাল-বিল-জলাশয় ছাড়াও পরিত্যাক্ত পুকুরগুলোকে কাজে লাগিয়ে মাছের উৎপাদন বৃদ্ধির জন্য চেষ্টা করে যাচ্ছেন। এছাড়া হারিয়ে যাওয়া দেশি প্রজাতির মাছগুলো ফিরিয়ে আনতে সরকারের পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করা হচ্ছে।

সংবাদ সম্মেলনে প্রধান অতিথি ছিলেন লালমনিরহাটে ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসকের দায়িত্বে থাকা অতিরিক্ত জেলা প্রশসক (রাজস্ব) মোঃ আহসান হাবিব।

সংবাদ সম্মেলনে সদর উপজেলা সহকারী মৎস্য কর্মকর্তা (এএফও) মোঃ হাসমত আলী জানান, জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ উপলক্ষে ১৭ থেকে ২৩ জুলাই পর্যন্ত বিভিন্ন কর্মসূচি পালিত হবে। এর মধ্যে রয়েছে র‌্যালি, আলোচনা সভা, প্রামান্য চিত্র প্রদর্শন, মোবাইল কোর্ট পরিচালনা, মৎস্য মেলা, বিতর্ক প্রতিযোগিতা ও মাছ চাষিদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন লালমনিরহাট জেলা মৎস কর্মকর্তা অফিসের সকল কর্মচারী-কর্মকর্তা, বিভিন্ন প্রিন্ট, ইলেকট্রিক ও অনলাইন মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ।

জিন্নাতুল ইসলাম জিন্না/লালমনিরহাট