লামায় বন্যহাতির পায়ে পিষ্ট হয়ে নুরুল ইসলাম (৬০) নামে এক শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় লামা উপজেলার ফাসিয়াখালী ইউনিয়নের বড় ছনখোলা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত শ্রমিক বড় ছনখোলার বাসিন্দা মো. পেটান আলীর পুত্র।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, পাহাড়ে বাঁশ কাট‌তে গে‌লে বন্যহাতির আক্রমণের শিকার হন শ্রমিক নুরুল ইসলাম। এ সময় বন্যহাতিরা পায়ের নিচে পিষ্ট করে হত্যা করে তাকে। খবর পেয়ে পুলিশ ও স্থানীয়রা ঘটনাস্থলে গিয়ে সন্ধ্যায় নিহতের লাশ উদ্ধার করে।

নিহতের স্ত্রী খুইল্যা খাতুন জানান, সকালে পাহাড়ে বাঁশ কাটতে গিয়েছিল স্বামী নুরুল ইসলাম। সন্ধ্যায় বাড়িতে না ফেরায় খুঁজতে গিয়ে বাম হাতিরছড়া এলাকা থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

স্থানীয় ইউপি মেম্বার আব্দুর রহিম বলেন, নিহতের শরীরে আঘাতের চিহ্ন দেখে মন হচ্ছে হাতির আক্রমণে তার মৃত্যু হয়েছে। শরীরের বিভিন্ন অংশ থেঁতলে গেছে।

লামা থানার ওসি অপ্পেলা রাজু নাহা জানান, ফাসিয়াখালীর বাম হাতিরছড়া থেকে এক শ্রমিকের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে বন্যহাতির পায়ে পিষ্ট হয়ে তার মৃত্যু হয়েছে। লাশটি ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে।