আগুনে পুড়ে যাওয়া খামারবাড়ি।

লামা উপজেলার সদর ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ড দুর্গম এম. হোসেন পাড়ায় দুর্বৃত্তদের আগুনে পুড়েছে খামারবাড়ি। বুধবার (২৪ এপ্রিল) রাত ১টায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। দুর্বৃত্তত’রা একটি খামার বাড়িতে আগুনে ধরিয়ে দেয়।

খামারের মালিক আবু তাহের (৫৫) প্রাথমিকভাবে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ ৩ লাখ টাকা বলে দাবি করেন।

কৃষক আবু তাহের বলেন, রাত ১টা ৩০ মিনিটে আমি জানতে পারি কে বা কারা আমার খামার বাড়িতে আগুন লাগিয়ে দিয়েছে। আগুনে ১টি খামার ঘর, ২০ বেল তামাক ও মালামাল পুড়ে গেছে।

তিনি আরও জানান, কয়েকদিন আগে আমার খামারের বর্গাচাষী দেলোয়ার হোসেনের সাথে আমার তামাক ও লেনদেনের টাকা নিয়ে বিরোধ হয়। দেলোয়ার আমার পরিবারের ১৫ জনের নামে লামা সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা করলে আদালত সবার নামে ওয়ারেন্ট জারী করে। এছাড়া এলাকার কারো সাথে আমার কোন বিরোধ নেই। তাই আগুনের বিষয়ে দেলোয়ারকে আমার সন্দেহ হয়েছে।

এই বিষয়ে দেলোয়ার হোসেন বলেন, আমাকে ফাঁসাতে নাটকীয় ঘটনার জন্ম দিয়েছে আবু তাহের।

স্থানীয় ওয়ার্ড মেম্বার আবুল কাসেম বলেন, আগুন লাগার পর পরই একজন আমাকে ফোন করে জানায়। ভোরে গিয়ে আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করি। ঘরের সব কিছু পুড়ে ছাই হয়ে গেছে।

বিষয়টি দুঃখজনক উল্লেখ করে লামা থানার ভারপ্রাপ্ত অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) আমিনুল হক বলেন, ঘটনাটি শুনেছি। তবে কেউ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এম এইচ বাবুল খাঁন/বান্দরবান