পুলিশের হাতে টাকা বুঝিয়ে দিচ্ছেন সারোয়ার জাহান (বান্ডেল হাতে)। ছবি- দি ডেইলি স্টার

ব্যাঙ্ক অফিসার সারোয়ার জাহান ঢাকার অফিস থেকে নারায়ণগঞ্জ বাড়ি ফেরার পথে সিএনজি চালিত অটোরিক্সায় কয়েক লাখ টাকার একটি ব্যাগ কুড়িয়ে পায়। অতঃপর প্রকৃত মালিকের খোঁজে সেই টাকা পুলিশের কাছে বুঝিয়ে দিলেন।

ঘটনাটি ঘটে আজ সোমবার ১১ ফেব্রুয়ারী বিকেলে ঢাকা-পাগলা-নারায়ণগঞ্জ এলাকায়। এ ঘটনায় নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়রি করা হয়েছে।

কুড়িয়ে পাওয়া টাকাগুলো ফিরিয়ে দেয়ার এই দৃষ্টান্ত দেখালেন নারায়ণগঞ্জের পাইকপাড়া এলাকার সারোয়ার জাহান। পেশায় তিনি ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক লিমিটেডের (ইউসিবি) নারায়ণগঞ্জ শাখার জুনিয়র অফিসার।

সারোয়ার জাহান এ ব্যাপারে বলেন, ঢাকায় অফিসের কাজ শেষ করে শ্যামপুরের ঢাকা ম্যাচ এলাকার সামনে থেকে নারায়ণগঞ্জ বাসার উদ্দ্যেশ্যে রওনা দেই। সিএনজি তে উঠতেই দেখি সিটে একটি ব্যাগ রাখা আছে।

সিএনজি চালককে জিগ্যেস করলে সে জানায় ব্যাগটি তার নয়। পরে ব্যাগটি খুলে দেখা হলে সেখানে কয়েকটি টাকার বান্ডেল ও ছবিসহ পাসপোর্ট এর ফটোকপি পাওয়া যায়। পরে টাকাসহ ব্যাগটি পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

ফতুল্লা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মঞ্জুর কাদের বলেন, ব্যাগে চার থেকে পাঁচ লাখ টাকা ও একটি পাসপোর্টের ফটোকপি আছে। ধারণা করা যাচ্ছে এ টাকার মালিক বিদেশ যাওয়ার জন্য টাকা জমা দিতে কিংবা ব্যাংক থেকে টাকা তুলে নিয়ে যাচ্ছিলেন। সে ভুল করে ব্যাগটি ফেলে রেখে চলে যায়।

সারোয়ার জাহান মহৎ মানুষ। যে এতোগুলো টাকা পেয়েও কোন লোভ না করে প্রকৃত মালিককে পৌঁছে দেওয়ার জন্য পুলিশের কাছে নিয়ে এসেছেন।

তিনি আরও জানায়, যেহেতু টাকাগুলো অটোরিকশায় পাওয়া গেছে সেহেতু চালকের নাম ও সারোয়ার জাহানের নাম উল্লেখ করে একটি জিডি করা হয়েছে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও গণমাধ্যমে প্রচারসহ পাসপোর্টের ঠিকানায় যোগাযোগ করে উপযুক্ত প্রমাণের মাধ্যমে প্রকৃত মালিকের কাছে টাকা ফেরত দেয়ার চেষ্টা চলছে।

আজকের পত্রিকা/মির