নূরুল আলম আতিক । ছবি : সংগৃহীত

‘সময়, এক আলেয়ার ফুল’ শিরোনামে এক আলোচনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে অনলাইন প্লাটফর্ম ‘লঘু-গুরু’। এ ধরনের অনুষ্ঠান এই সংগঠনটি নিয়মিত করে থাকে।

অনুষ্ঠানটির এবারের বক্তা চলচ্চিত্র নির্মাতা নূরুল আলম আতিক। অনুষ্ঠানটি সবার জন্য উন্মুক্ত। ২০ এপ্রিল শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা নাগাদ ‘লঘু-গুরু’র নিকেতনের ব্লক ডি, রোড নং ৫, বাড়ি-২ এই ঠিকানায় অনুষ্ঠানটি অনুষ্ঠিত হবে বলে জানা যায়।

এই অনুষ্ঠানটির বর্ণনা করতে গিয়ে ‘লঘু-গুরু’ তাদের ফেসবুক পেজে লিখে, ‘আগুনে পোড়া ধুলায় মোড়া বাস চাপা বগলদাবা করা ব্ল্যাক হোল জমানায় আপনাদের উত্তর দক্ষিণ শহরে ‘সময়, এক আলেয়ার ফুল’- ইহা আবার কি বস্তু? আবার বলা হচ্ছে এটা সংগৃহীত কেচ্ছা কাহিনি-১ মানে আর কয়েক কিস্তি হতে পারে কি? ঠাকুরমা’র ঝুলি তো সেই কবেই ফুটা হয়া বাজারে সয়লাব যখন বেস্ট সেলার হবার গোপন মন্ত্র জেনে গেছে পাঠিকা – তো এইসব ফন্দী ফিকির ধান্দাবাজি জনতা ঠিকই বুঝে!

সুহৃদ জানিবেন, আগামী ২০ এপ্রিল ২০১৯ রোজ শনিবার সন্ধ্যা ৬টা বেজে ৩০ মিনিট নাগাদ আমাদের সকলের প্রিয় কিংবা অপ্রিয় নূরুল আলম আতিক কথা বলবেন লঘুগুরু’র আঙ্গিনায়। তার পেশা লেখা এবং চলচ্চিত্র নির্মাণ- এসব পুরনো কথা না বললেও চলবে। নতুন কথাটা হল- যেসব কথা বলব বলব করেও বলা হয় নাই এত এত কাল, সে কথামালা গাঁথবেন বলে কথা দিয়েছেন আতিক। কথা শুরু হবে হাজার বছরের পুরনো কোনো এক সমুদ্র যাত্রা থেকে। মাঝে থামবেন এস এম সুলতানের বাড়িতে। নারায়ণগঞ্জের আর পি সাহার ঘাটে। সেখান থেকে সোনালী আঁশ বিক্রির টাকায় এই বঙ্গের মুসলমানদের বিদেশ গমন। শেষে একখান চমক কিংবা সিনেমার সৈয়দ ওয়ালীউল্লাহ।

সোজা বাংলায় বললে এই শো হাউজফুল প্রচুর হাততালি হবে যদিও আসন সংখ্যা সীমিত তাই আগে আসলে আগে সিট পাবেন টাকা লাগবে না।’

নূরুল আলম আতিক । ছবি : মাহদি হাসান

নূরুল আলম আতিক ১৯৭০ সালের ৩১ আগস্ট টাঙ্গাইলে জন্মগ্রহণ করেন। শিল্প ও সাহিত্যপত্রিকা নৃ-এর সম্পাদক। চিত্রনাট্যকার ও চলচ্চিত্র পরিচালক। ২০০০ সালে তিনি ‘কিত্তনখোলা’ চলচ্চিত্রের জন্য শ্রেষ্ঠ চিত্রনাট্যকার হিসেবে জাতীয় পুরস্কারে সম্মাতিন হয়েছেন। এ পর্যন্ত তিনি ছয়বার মেরিল-প্রথম আলো পুরস্কার অর্জন করেছেন পরিচালনা ও চিত্রনাট্য রচনার জন্য। বিকল পাখির গান, ডুবসাঁতার তাঁর উল্লেখযোগ্য পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র। বর্তমানে ব্যস্ত আছেন মানুষের বাগান ও পেয়ারার সুবাস নামে দুটি চলচ্চিত্রের কাজ নিয়ে।

আজকের পত্রিকা/এসএ/এমআরএস