লক্ষ্মীপুরে আবদুর রহিম (৫২) নামে এক ব্যবসায়ীর উপর হামলা হামলার ঘটনা ঘটেছে। এসময় ওই ব্যবসায়ীর বসত ঘর ও মুদি দোকান ভাংচুর করে মালামাল লুটের অভিযোগ করেছে ভুক্তভোগী। আহত ব্যবসায়ী ও তার স্ত্রী ফাতেমা বেগমকে লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

১৩ জানুয়ারি সোমবার সদর উপজেলার শাকচর গ্রামে (জিলানী জামে মসজিদ) এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

ভুক্তভোগী পরিবার ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, দীর্ঘদিন থেকে আবদুর রহিমের সাথে ইউসুফ গংদের জমিসংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছে।

এর জের ধরে দুপুরে ইউসুফের নেতৃত্বে হামলা চারায় সিরাজুল ইসলামের ছেলে নিশান, মৃত: আহাম্মদ উল্যাহ ছেলে নুর ইসলাম, ইউসুফের ছেলে মোঃ জাকির, নুর ইসলামের ছেলে শাকিল, সাদ্দাম, রিয়াজ সহ ৪/৫ জন। এ সময় তাকে পিটিয়ে জখম করা হয়।

পরে তার দোকানে ঢুকে লুটপাট ও ভাংচুর চালায় তারা। এসময় নগদ টাকা সহ প্রায় লক্ষাধিক টাকার স্বর্ণালংকার লুটে নেয়া হয়।

ব্যবসায়ী আবদুর রহিম জানান, ইউসুফের নেতৃত্বে আমাদের উপর হামলা চালানো হয়েছে। পরে আমার বসত ঘর ও দোকান ঘর ভাংচুর করে যাওয়ার সময় নগদ টাকা, স্বর্ণলংকার ও দোকানের মুদি মালামাল, গ্যাসের চুলাসহ আসবাব পত্র একটি ট্যাক্টর ট্রলিতে উঠিয়ে লুট করে নিয়ে যায়।

বুধবার দুপুরেও রিয়াজের নেতৃত্বে এসে হুমকি দিচ্ছে বলে অভিযোগ করেন তিনি।

অভিযোগ অস্বীকার রিয়াজ হোসেন বলেন, আমার বাড়ী তার বাড়ী থেকে অনেক দূরে। ওই সমাজের লোকজন দেখেছে। এছাড়া আমি আর কিছু জানিনা।

মোঃ সোহেল রানা/লক্ষ্মীপুর