লক্ষ্মীপুরে নির্মিত হবে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি স্তম্ভ

দীর্ঘ প্রতিক্ষার পর অবশেষে বাস্তবায়িত ও নির্মিত হতে যাচ্ছে বহুল প্রত্যাশিত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্মৃতি স্তম্ভ। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্মৃতিবিজড়িত স্থান সংরক্ষণের অংশ হিসেবে

লক্ষ্মীপুরে রামগতি উপজেলার চরপোড়াগাছা গ্রামে ‘শেখের কিল্লায়’ স্থাপন করা হবে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি স্তম্ভ।

২১ নভেম্বর বৃহস্পতিবার দুপুরে লক্ষ্মীপুরে রামগতির মুজিব কিল্লা ও চরপোড়াগাছা গুচ্ছগ্রাম পরিদর্শন শেষে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি বক্তব্যে এ কথা বলেন সাবেক বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রী আলহাজ্ব এ কে এম শাহজাহান কামাল এমপি।

চরপোড়াগাছা উচ্চ বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে আয়োজিত সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন, ভূমি মন্ত্রণালয়ের এর অধীনে গুচ্ছগ্রাম-২য় পর্যায়ে (সিভিআরপি) প্রকল্প পরিচালক ও অতিরিক্ত সচিব জাবেদ আহমেদ।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর শতবর্ষপূর্তি অর্থাৎ মজিববর্ষের আগেই বঙ্গবন্ধু স্মৃতি স্তম্ভ নির্মিত হবে। প্রায় ৩ একর সম্পত্তি নিয়ে দর্শনীয় হিসেবে এ স্তম্ভ নির্মিত হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, একই মন্ত্রণালয়ের উপসচিব ড. এ কে এম অলি উল্যা, লক্ষ্মীপুরে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মো: মিনহাজুর রহমান, রামগতি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো: আব্দুল মমিন, রামগতি পৌরসভার মেয়র মেজবাহ উদ্দিন মেজু, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যাপক আব্দুল ওয়াহেদ, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট জেলা শাখার সভাপতি জাকির হোসেন ভূঁইয়া আজাদ প্রমুখ।

উল্লেখ্য, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান পাকিস্তান কারাগার থেকে মুক্তি পাওয়ার পর ১৯৭২ সালের ২০ ফেব্রæয়ারি ঢাকার বাইরে প্রথম রামগতির চর পোড়াগাছায় সফর করেন।

এসময় তিনি প্রাকৃতিক দুর্যোগে মানুষের পাশাপাশি গবাদি পশু রক্ষার জন্য কিল্লা স্থাপনের কাজের উদ্বোধন করেন। সে স্থান পরবর্তীতে শেখের কিল্লা বা মুজিব কিল্লা নামে পরিচিত হয়। এরই অংশ হিসেবে তরুণ প্রজন্ম ও স্থানীয় জনসাধারণের দীর্ঘ দিনের স্বপ্ন রামগতিতে বঙ্গবন্ধুর স্মৃতি স্তম্ভ নির্মাণ হবে!

এটি নির্মিত হলে ভবিষ্যৎ প্রজন্ম বঙ্গবন্ধুর জীবন ও আদর্শ সম্পর্কে জানতে পারবে।-

-মো: সোহেল রানা