লক্ষ্মীপুরে কোরআন হাফেজদের পাগড়ি প্রদান

লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে আফিয়া হারুন নূরাণী হাফেজিয়া মাদ্রাসার ৫ জন নতুন কোরআনে হাফেজকে স্বীকৃতিস্বরূপ পাগড়ি পরিয়ে দেওয়া হয়েছে।

এ উপলক্ষে ৮ ডিসেম্বর রবিবার সন্ধ্যায় মাদরাসার মাঠে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি টুমচর কামিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা হারুন আল-মাদানী হাফেজদের মাথায় পাগড়ি পরিয়ে দেন। এর আগে আলোচন সভা অনুষ্ঠিত হয়। পরে দেশ ও জাতির কল্যাণ কামনা করে হাফেজদের নিয়ে দোয়া অনুষ্ঠিত হয়।

মাদ্রাসার সভাপতি ও নোয়াখালী আব্দুল মালেক উকিল মেডিকেল কলেজের গাইনী বিভাগের সাবেক সহযোগী অধ্যাপক ডাঃ মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন, রায়পুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ মামুনুর রশিদ, রায়পুর আলিয়া মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা আ.ন.ম নিজাম উদ্দিন প্রমুখ।

আলোচনায় বক্তারা বলেন, কোরআন শরীফ আল্লাহর কালাম। আল্লাহপাক যাকে তৌফিক দান করেন, সেই কোরআনে হাফেজ হন। হাদিস শরীফে আছে কেয়ামতের দিন হাফেজে কোরআনরা ১০জনকে সাফায়াত করতে পারবে। আমাদের সমাজে একটা প্রচলিত রেওয়াজ আছে যে ধর্মীয় শিক্ষাকে ছোট করে দেখা হয়। কিন্তু আসলে ধর্মীয় শিক্ষা ব্যতিত কেউ আদর্শবান মানুষ হতে পারে না। তাই প্রত্যেকের উচিৎ তার সন্তানকে প্রথমে ধর্মীয় শিক্ষায় শিক্ষিত করা।

এসময় মাদ্রাসার শিক্ষক, শিক্ষার্থী, অভিবাবক সহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্যঃ নোয়াখালী আব্দুল মালেক উকিল মেডিকেল কলেজের গাইনী বিভাগের সাবেক সহযোগী অধ্যাপক ডাঃ মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ সম্পূর্ণ নিজ অর্থায়নে ধর্মীয় এ মাদ্রাসাটি পরিচালনা করছেন।

মোঃ সোহেল রানা/লক্ষ্মীপুর