রৌমারী সীমান্তে জিঞ্জিরাম নদী থেকে খয়বর রহমান (৪৫) নামের এক গরু ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। ১৫ জানুয়ারী (বুধবার) ভোররাতে উপজেলার দাঁতভাঙ্গা ইউনিয়নের ধর্মপুর সীমান্তে এ ঘটনাটি ঘটে।

স্থানীয় ও গ্রামবাসি সুত্রে জানা যায়, ভোররাতে একদল গরু ব্যবসায়ী ১০৫৬-৫৭ নং মেইন পিলার দিয়ে আন্তর্জাতিক সীমানা অতিক্রম করে অবৈধভাবে আঁড়কির মাধ্যমে গরু পাচার করছিল।

এসময় ভারতের গুটলি গাঁও ক্যাম্পের বিএসএফ চোরাকারবারিদের ধাওয়া করলে খয়বর রহমান সীমান্তের সন্নিকটে জিঞ্জিরাম নদীতে ঝাপ দেয়। সাথে থাকা অন্য চোরাকারবারিরা পালিয়ে আসতে সক্ষম হয় ।

বুধবার দুপুরের দিকে জেলেদের মাঝ ধরা জাল নদীতে ফেলানো হলে নিহতের লাশ ভেসে উঠে। পরে রৌমারী থানার পুলিশকে সংবাদ দিলে নিহতের লাশের সুরুতহাল রিপোর্ট তৈরি করে থানায় আনা হয়।

নিহত যুবক দাঁতভাঙ্গা ইউনিয়নের হরিণধরা গ্রামের নজির হোসেনের ছেলে। তার ঘরে ৪ ছেলে সন্তান রয়েছে।

এবিষয়ে জামালপুর ৩৫ ব্যাটালিয়ন বিজিবি অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল এসএম আজাদ জানান, অবৈধ ভাবে আর্ন্তজাতিক সীমানা পেরিয়ে ভারতের অভ্যান্তরে অনুপ্রবেশের চেষ্টা করলে বিএসএফ তাকে ধাওয়া করলে সে নদীতে ঝাপ দেয়। সেখানেই সে পানিতে তলিয়ে যায় এবং মৃত্যুবরন করে। তবে তার শরীরে আঘাতের কোন চিহ্ন পাওয়া যায়নি।

রৌমারী থানার অফিসার ইনচার্জ আবু মোহাম্মদ দিলওয়ার হ্সাান ইনাম বলেন, নিহতের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তার শরীরে আঘাতের কোন চিহ্ন পাওয়া যায়নি। লাশ ময়না তদন্তের জন্য কুড়িগ্রাম মর্গে পাঠানো হবে।

-মাসুদ পারভেজ রুবেল