কুড়িগ্রামের রৌমারী উপজেলার বন্যা দুর্গোত এলাকায় বানভাসী ৫’শ পরিবারের মাঝে নিজ অর্থায়নে খিচুরী বিতরণ করেছেন রৌমারী সদর ইউপি সদস্য শাহ আলম।

২০ জুলাই (শনিবার) বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে রৌমারী সদর ইউনিয়নের গুচ্ছ গ্রামে এ খিচুরী বিতরণ করা হয়। রৌমারী সদর ইউনিয়নের ডিসি রাস্তার পূর্বাঞ্চলে সরকারী-আধাসরকারী ভাবে বানভাসীদের মাঝে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত গুচ্ছ গ্রাম, গোয়সুলেরচর, নতুনবন্দর, পুর্ব ইছাকুড়ি, রতনপুর, বামনেরচর, চরবামনের চর, খাটিয়ামারী, নওদাপাড়া, বোল্লাপাড়াসহ কয়েকটি গ্রামে শুকনা খাবার দেওয়া হয়নি।

ঘরে ঘরে বন্যার পানি থাকায় রান্না করতে না পারায় বানভাসীদের মাঝে শুকনা খাবারের অভাব দেখা দেয়। ফলে রৌমারী সদর ইউপি সদস্য শাহ আলম নিজ অর্থায়নে খিচুরী রান্না করে ৫’শ পরিবারের মাঝে খিচুরী বিতরণ করেন।

প্রসঙ্গত, গত কয়েক দিনে প্রবল বর্ষনে ও ভারতীয় পাহাড়ী ঢলে রৌমারী উপজেলা চত্বরসহ সকল এলাকা প্লাবিত হয়। প্রবল স্রোতের কারনে বিভিন্ন এলাকার রাস্তা ভেঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে।

এতে প্রায় দেড় লক্ষাধিক মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়ে। শতশত পরিবার রৌমারীর ডিসি রাস্তা ও তুরা রাস্তায় আশ্রয় নিয়ে খোলা আকাশের নিচে মানবেতর জীবন যাপন করছেন। গরু, মহিষ, ছাগল, ভেড়াঁসহ অন্যান্য প্রাণীর খাদ্যের সংকট দেখা দিয়েছে।

আজকের পত্রিকা/এমপিআর/কুড়িগ্রাম