রমজানের দিন জনসম্মুখে খাওয়ার অভিযোগে ৮০ জনকে সীমিত সময়ের জন্য আটক করেছে দেশটির ইসলামিক শরিয়া পুলিশ। প্রতীকি ছবি

মুসলমানদের জন্য পবিত্র মাস রমজান। এ মাসে খাদ্য, যৌনতাসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে সংযম প্রদর্শন করে থাকেন মুসলিমরা।

উত্তর নাইজেরিয়ার কানো রাজ্যে রমজানের দিন জনসম্মুখে খাওয়ার অভিযোগে ৮০ জনকে সীমিত সময়ের জন্য আটক করেছে দেশটির ইসলামিক শরিয়া পুলিশ।

রমজান মাসে সূর্যোদয় থেকে সূর্যাস্ত পর্যন্ত ইসলাম ধর্মাবলম্বীদের যে কোনো ধরণের খাবার বা পানীয় গ্রহণ থেকে বিরত থাকার কথা।

উত্তর নাইজেরিয়ার যেসব রাজ্যে ২০০০ সালের পর থেকে শরিয়া আইন কার্যকর করা হয়, কানো তার মধ্যে একটি।

নাইজেরিয়ায় ধর্মনিরপেক্ষ আইনের পাশাপাশি শরিয়া আইনও আংশিকভাবে বাস্তবায়ন করা হয়।

কানো রাজ্যের হিসবাহ মুখপাত্র আদামু ইয়াহইয়া গণমাধ্যমকে জানান, আটককৃত ব্যক্তিদের সকলেই মুসলিম ছিলেন।

অমুসলিমদের যেহেতু ইসলামের নিয়ম-কানুন মানতে হয় না, তাই এই ধরণের অভিযানে কর্তৃপক্ষ অমুসলিমদের লক্ষ্যবস্তু করে না বলেও জানান ইয়াহইয়া।

তিনি বলেন, আটককৃতদের কয়েকজন জানিয়েছেন যে তারা রমজানের চাঁদ নিজে না দেখায় রোজা পালন করেন না আর অন্যান্যরা অসুস্থতাকে রোজা না রাখার কারণ হিসেবে উল্লেখ করেছেন।

তবে কর্তৃপক্ষ তাদের সবার যুক্তিকেই ভিত্তিহীন বলে দাবি করেছে।

“প্রথমবার আইন ভাঙায়” আটককৃত ৮০ জনকে সতর্ক করে ছেড়ে দেওয়া হয় বলে জানান তিনি।

তাদেরকে সাবধান করে দেওয়া হয় যে, এরপর যদি তারা ধরা পড়ে তাহলে তাদের আদালতেও পাঠানো হতে পারে।

যেসব মুসলিমরা রোজা রাখেন না, তাদের বিরুদ্ধে পুরো রমজান মাসই এধরণের অভিযান চলবে বলে হিসবাহ’র পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

আজকের পত্রিকা/এমএইচএস