নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণার পরেই হারের দায় নিজের ঘাড়ে নিয়েছেন কংগ্রেসের সভাপতি রাহুল গান্ধী। ছবি: সংগৃহীত

কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী পদত্যাগ করতে পারেন এমন কথা শুনেই দলের নবীন নেতারা দিল্লিতে আসতে শুরু করেছেন। তারা চান, রাহুল যেন কোনোভাবেই পদত্যাগ না করেন। তারা মনে করছেন, রাহুল হয়তো পদত্যাগ করে ফেলবেন।

এদিকে নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণার পরেই হারের দায় নিজের ঘাড়ে নিয়েছেন কংগ্রেসের সভাপতি রাহুল গান্ধী। তার পদত্যাগের সম্ভাবনা নিয়ে খবর ছড়াতেই দলে আলোড়ন তৈরি হয়েছে। ২৬ মে রবিবার ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠক। সেখানে কংগ্রেস সভাপতি কী করতে যাচ্ছে তা নিয়েও জল্পনা শুরু হয়েছে। বৈঠকে রাহুল পদত্যাগ করতে চাইলে আদৌ কি তা গ্রহণ করা হবে? এমন প্রশ্নে মতিলাল ভোরার মতো প্রবীণ নেতারা রাহুলের ওপরই আস্থা রাখছেন। ভোরার পাল্টা প্রশ্ন, রাহুল গান্ধীর বদলে দায়িত্ব নিতে পারেন দলে এমন ব্যক্তি কে আছেন? দলে শীর্ষ পদের প্রত্যাশী যে নেই, তা নয়।

এদিকে রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গহলৌত এক টুইট বার্তায় লিখেছেন, ‘সভাপতির পদত্যাগের প্রসঙ্গ ভিত্তিহীন ও অপ্রাসঙ্গিক। এটা আমরা কখনও মানব না। রাহুল গান্ধীর অক্লান্ত পরিশ্রম ও লড়াকু মেজাজের কারণেই এনডিএ-কে শক্ত চ্যালেঞ্জের মুখে ফেলেছিল কংগ্রেস।‘

প্রবীণ নেতাদের অনেকেই মনে করছেন, নিজের আশপাশে রাহুল যাদের রেখেছেন, তারাই ভুল পরামর্শ দিয়েছেন। এসব ভুল নিয়ে নতুন চিন্তাভাবনা করে এগোতে হবে।

আজকের পত্রিকা/বিএফকে/এমএআরএস/জেবি