১৩৪ রান যথেষ্ট হয়নি ঢাকার। সে রান বেশ সহজেই ছাড়িয়ে গেছে রাজশাহী- হজরতউল্লাহ জাজাই, লিটন দাস ও শোয়েব মালিক আর কাউকে বিরক্ত করেননি ব্যাটিং করতে নামতে বলে। মাঠে ফেরার দিনে তাই পরাজয় সঙ্গী হলো তামিম ইকবাল-মাশরাফি বিন মুর্তজাদের। বিশ্বকাপের পর এই প্রথম প্রতিযোগিতামূলক ক্রিকেট খেলতে নেমেছিলেন মাশরাফি, আর ব্যক্তিগত কারণে ভারত সফর মিস করেছিলেন তামিম।

১৩৪ রান পেরিয়ে যেতে রাজশাহীর প্রয়োজন পড়লো ১৮.২ ওভার। অবশ্য ঢাকার ইনিংসে নামা ধসে একসময় মনে হচ্ছিল, রাজশাহীর লক্ষ্য দাঁড়াবে আরও কম।

৭৮ রান থেকে ২ উইকেট থেকে ৮৩ রানে ৬ উইকেট বনে যাওয়া ঢাকা শেষ পর্যন্ত ১৩৪ রান পর্যন্ত গিয়েছিল ওয়াহাব রিয়াজের ১২ বলে ১৯ ও মাশরাফি বিন মুর্তজার ১০ বলে ১৮ রানের ক্যামিওতে। এনামুল হক বিজয় ও জাকের আলির জুটিতে শুরুর ২ উইকেটের ধাক্কা কাটিয়ে ওঠার ইঙ্গিত দিলেও আবারও খেই হারিয়েছিল ঢাকা।