প্রচারণায় ব্যস্ত সময় পার করছেন প্রার্থী। ছবি প্রতিনিধি।

৫ম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ৩য় পর্যায়ে আগামী ২৪ মার্চ রাজবাড়ী জেলার ৪ উপজেলায় অনুষ্ঠিত হবে ভোট গ্রহন।নির্বাচনে রাজবাড়ী সদর, গোয়ালন্দ, পাংশা ও বালিয়াকান্দি উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ৯ জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ১৫ জন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৮ জন প্রার্থী ভোটের মাঠে লড়াই করছেন।

রাজবাড়ী সদরে চেয়ারম্যান পদে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মোঃ সফিকুল ইসলাম (প্রতীক – নৌকা),স্বতন্ত্র প্রার্থী এসএম নওয়াব আলী (প্রতীক-দোয়াত কলম), এ্যাডভোকেট ইমদাদুল হক বিশ্বাস (প্রতীক – আনারস), ভাইস চেয়ারম্যান পদে মোহন মোল্লা ( প্রতীক -টিউবওয়েল), এ্যাডভোকেট সফিকুল হোসেন (প্রতীক -উড়োজাহাজ), রকিবুল হাসান পিয়াল (প্রতীক – তালা), মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে মীর মাহফুজা খাতুন মলি (প্রতীক-কলস), মোছাঃ আলেয়া বেগম (প্রতীক -হাঁস) প্রতিদ্বন্দ্বিতায় করছেন।

গোয়ালন্দ উপজেলায় বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগের প্রার্থী মোঃ নুরুল ইসলাম। এছাড়া ভাইস-চেয়ারম্যান পদে আসাদুজ্জামান চৌধুরী (প্রতীক – টিয়াপাখি), আবুল কালাম আজাদ (প্রতীক – উড়োজাহাজ), মোঃ গিয়াসউদ্দিন শেখ (প্রতীক – তালা), গোলাম মহিউদ্দিন সরকার (প্রতীক – গোলাপ ফুল), আব্দুল বাতেন (প্রতীক – মাইক), গোলাম মাহবুবুর রব্বানী (প্রতীক – চশমা), আব্দুর রহমান মন্ডল (প্রতীক – টিউবওয়েল), মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান পদে মোছাঃ নাজমা খাতুন (প্রতীক – কলস), মোছাঃ নারর্গিস পারভীন (প্রতীক – ফুটবল) প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।
বালিয়াকান্দি উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত আবুল কালাম আজাদ (প্রতীক -নৌকা), ন্যাশনাল পিপলস পার্টির মোঃ আশরাফ মোল্লা (প্রতীক -আম), স্বতন্ত্র মোঃ এহসানুল হাকিম (প্রতীক -মোটর সাইকেল), ভাইস-চেয়ারম্যান পদে মনিরুজ্জামান মনির (প্রতীক -তালা), হারুন অর রশিদ (প্রতীক -টিউবওয়েল),সনজিৎ রায় (প্রতীক -চশমা),মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান পদে খোদেজা বেগম (প্রতীক -হাঁস), মৌসুমী আক্তার (প্রতীক -কলস) প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

পাংশা উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত এ কে এম সফিকুল মোরশেদ (প্রতীক -নৌকা),স্বতন্ত্র মোঃ ফরিদ হাসান ওদুদ (প্রতীক -আনারস), ভাইস চেয়ারম্যান পদে জালাল উদ্দিন (প্রতীক -উড়োজাহাজ), মোস্তফা মাহমুদ (প্রতীক -তালা), মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে মোছাঃ রোকেয়া বেগম (প্রতীক -হাঁস) ও সফুরা খাতুন (প্রতীক -কলস) প্রতিদ্বন্দীতা করছেন।

রাজবাড়ী সদর উপজেলা পরিষদে আওয়ামী লীগের মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মোঃ সফিকুল ইসলাম বলেন, আগামী ২৪ শে মার্চ সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। সারিবদ্ধ ভাবে কাধে কাধ মিলিয়ে হাতে হাত মিলিয়ে সদর উপজেলাবাসী কে সঙ্গে নিয়ে দলীয় নেতাকর্মীদের কে নিয়ে ঐক্যবদ্ধভাবে সাধারন মানুষের সেবায় নিজেকে নিয়োজিত করতে প্রস্তুত।

স্বতন্ত্র প্রার্থী এ্যাডভোকেট ইমদাদুল হক বলেন,যেহেতু ৩বার উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ছিলাম জনগনের প্রতি আমার যে বিশ্বাস এবং যে আস্থা রয়েছে তাতে আমি বিশ^াস করি জনগণ ভোট দিতে ভুল করবে না।তারা চতুর্থবারের মত আমাকে পুনরায় নির্বাচিত করবে।

বালিয়াকান্দি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী আবুল কালাম আজাদ বলেন,বঙ্গবন্ধুর কণ্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অঙ্গিকার করেছেন যে দেশ থেকে মাদক,দূর্নীতি,সন্ত্রাসবাদ,জঙ্গীবাদ উচ্ছেদ করবেন।বঙ্গবন্ধুর কন্যার সাথে সেই কাজগুলো আমরা বালিয়াকান্দি উপজেলায় করবো।

ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী সনজিৎ রায় বলেন, আগামী ২৪ মার্চ বালিয়াকান্দি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আমার বিশ^াস সাধারন জনগন তাদের ভোট দিয়ে আমাকে বিজয়ী করবে। আমাকে বিজয়ী করলে অতিতের মত সব সময় আমি মানুষের পাশে থেকে কাজ করবো।

ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী হারুন অর রশীদ বলেন,আল্লাহর রহমতে সাধারন মানুষের ভোটে বিজয়ী হলে বালিয়াকান্দি উপজেলাবাসীর বাল্য বিবাহ,মাদক সহ যে সমস্ত প্রাথমিক সমস্যাগুলো রয়েছে তা নিরসনে কাজ করবো।

বালিয়াকান্দি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে তালা প্রতীকে ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী মোঃ মনিরুজ্জামান মনির বলেন,সাধারন মানুষের ভালোবাসার কারনে প্রার্থী হয়েছি।তরুণ প্রজন্মকে সাথে নিয়ে উপজেলাবাসীর খেদমতে নিজেকে নিয়োজিত করতে সকলের দোয়া চাই।

মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী খোদেজা বেগম বলেন,নারীদের পক্ষে কথা বলেছি,বলছি ভবিষতেও বলবো।নারী নির্যাতনে রুখে দাড়াবো।নারীদের কল্যাণে কাজ করবো।

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) ও রাজবাড়ী সদর এবং বালিয়াকান্দি উপজেলা রিটানিং অফিসার মোহাম্মদ আশেক হাসান জানান, ৫ম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ৩য় ধাপে রাজবাড়ী জেলার সদর ও বালিয়াকান্দি উপজেলা পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে আগামী ২৪ মার্চ।

নির্বাচনটি অবাধ ,সুষ্ঠ ও নিরোপেক্ষ করার জন্য সর্বাত্বক প্রস্তুতি গ্রহন করা হয়েছে। ইতোমধ্যে প্রত্যেক উপজেলায় ম্যাজিট্রেট নিয়োগ করা হয়েছে। প্রত্যেক ভোটার যেন র্নিবিঘ্নে ভোট কেন্দ্রে আসতে পারে সেজন্য সব প্রস্তুতি গ্রহন করেছি।

নিরাপত্তার ব্যাপারে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সাথে যোগাযোগ করা হয়েছে।বিভিন্ন ধরনের আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী সেল, অবজারভেশন টিম, মনিটরিং টিম গঠন করা হয়েছে। আশা করছি সকলের সহযোগীতায় আমরা একটি সুন্দর নির্বাচন উপহার দিতে সক্ষম হবো।

জেলা নির্বাচন অফিসার ও গোয়ালন্দ এবং পাংশা উপজেলা রিটানিং কর্মকর্তা মোহাম্মাদ হাবিবুর রহমান জানান,৫ম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ৩য় পর্যায়ে রাজবাড়ী জেলার ৪ উপজেলা পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৯,ভাইস চেয়ারম্যান পদে ১৫ ও মহিলা ভাইস চেযারম্যান পদে ৮ জন অংশ নিয়েছেন।

নির্বাচনে ভোট গ্রহনের জন্য ৪ উপজেলায় ২৬৬টি ভোট কেন্দ্র, ১ হাজার ৭২৫ টি ভোট কক্ষ, ২৬৬ জন প্রিজাইডিং অফিসার,১ হাজার ৭২৫ জন সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার,৩ হাজার ৪৫০ জন পোলিং অফিসার দায়িত্বে থাকবেন। এদের মধ্যে শতকরা ৫ ভাগ রিজার্ভ অফিসার থাকবেন।

রাজবাড়ী সদরে ২ লক্ষ ৫৯ হাজার ৯৫৯,গোয়ালন্দে ৮৬ হাজার ৭৫২,পাংশায় ১ লক্ষ ৮৬ হাজার ১২৯ ও বালিয়াকান্দি উপজেলায় ১ লক্ষ ৫৮ হাজার ৭৪৬ জন ভোটার রয়েছেন।

কাজী মাহমুদ/রাজবাড়ী