আটক ধর্ষক।

রাজবাড়ী সদর উপজেলার মুকুন্দিয়ায় বুদ্ধি প্রতিবন্ধী তরুনী (২২) কে জোর পূর্বক ধর্ষণ করে অন্তঃসত্বা করার মামলায় অভিযুক্ত ধর্ষক মিন্টু মীর (২৮) কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

১০ মে শুক্রবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে জেলা সদরের মুকুন্দিয়া গ্রাম থেকে মিন্টু কে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃত মিন্টু মুকুন্দিয়া গ্রামের রওশন মীরের ছেলে।

এ মামলার আরেক আসামী ধর্ষণের সহযোগী মিন্টুর ভাবী একই গ্রামের শাজাহান মীরের স্ত্রী মোছাঃ বিউটি বেগম (৪০) কে গ্রেপ্তারে অভিযান চালাচ্ছে পুলিশ।

রাজবাড়ী সদর থানার এস আই এনছের আলী জানান,নির্যাতিত প্রতিবন্ধী তরুনীর বোন আলেয়া বেগম ৮ মে বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে ২০০০ (সংশোধনী ৩০) এর ৯ (১) ৩০ ধারায় ২ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করে।মামলা নং ২২।

মামলার প্রধান আসামী মিন্টু কে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। আরেক আসামি মোছাঃ বিউটি বেগম ধরতে অভিযান চলছে।

উল্লেখ্য, রাজবাড়ী সদর উপজেলার পাঁচুরিয়া ইউনিয়নের মুকুন্দিয়া গ্রামে এক বুদ্ধি প্রতিবন্ধী (২২) কে ধর্ষণের অভিযোগ উঠে মিন্টু মীর (২৮) নামে এক অটোরিকশা চালকের বিরুদ্ধে।

বর্তমানে নির্যাতনের শিকার প্রতিবন্ধী তরুণী ৮ মাসের অন্তঃসত্ত্বা। এ ঘটনায় গত ৮ মে বুধবার প্রতিবন্ধী ওই তরুণীর বোন বাদী হয়ে মুকুন্দিয়া গ্রামের রওশন মীরের ছেলে মিন্টু মীর ও তার চাচাতো ভাই শাজাহান মীরের স্ত্রী বিউটি বেগম (৪০) কে আসামি করে রাজবাড়ী সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করে।

রাজিব সরদার/রাজবাড়ী