যৌন নিপীড়ন সচেতনতা ও জরিপ পরিচালনায় ষষ্ঠ ইন্দ্রিয়ের কর্মশালা

শিশু যৌন নিপীড়ন বিষয়ক সচেতনতা তৈরি ও জরিপ পরিচালনায় নবম কর্মশালা বাস্তবায়ন করেছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘ষষ্ঠ ইন্দ্রিয়’।

রাজশাহীর কাটাখালীর সুচরণ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শনিবার সকাল ১০ টা থেকে দুপুর ১ টা পর্যন্ত এ কর্মশালার আয়োজন করে সংগঠনটি।

৬ পর্বে বিভক্ত এই কর্মশালার প্রথম ধাপে পরিচিতি পর্ব, দ্বিতীয় ধাপে শরীরের ব্যক্তিগত অঙ্গগুলোর সাথে পরিচিতি এবং ভালো স্পর্শ ও খারাপ স্পর্শের পার্থক্য বুঝানো, তৃতীয় ধাপে কে বা কারা ব্যক্তিগত অঙ্গগুলো দেখতে/স্পর্শ (প্রয়োজনে) পারবে তা বুঝিয়ে দেয়া, চতুর্থ ধাপে কেউ খারাপভাবে আদর করলে কি কি উপায়ে তারা নিজেকে রক্ষা করবে তার স্পষ্ট ধারণা দেয়া, পঞ্চম ধাপে ৩য়, ৪র্থ ও ৫ম শ্রেণীতে জরিপ পরিচালনা এবং ষষ্ঠ ধাপে সংগঠনটির ৬ জন সদস্য অংশ নিয়ে স্কুল কর্তৃপক্ষের সহযোগীতায় প্রায় ২২০ জন শিক্ষার্থীকে প্রশিক্ষণ, শিক্ষকদের সাথে মতবিনিময় ও সচেতনতামূলক লিফলেট বিতরণসহ বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়।

সংগঠনটির সভাপতি নওরীন আমিনা বলেন, শিশু যৌন নিপীড়নের ঘটনাগুলোর ক্ষেত্রে ৯০% নিপীড়ক শিশুদের পূর্বপরিচিত ও পরিবারের কাছে কেউ হয়ে থাকে। তাই শিশুরা ভয় পায় বিষয়টি বাবা-মাকে জানাতে। অনেকসময় নিজেকেই দোষী ভাবে। ভালো আদর-খারাপ আদর ও শরীরের ব্যক্তিগত অংশ সম্পর্কে স্পষ্ট ধারণা না থাকায়, তারা বুঝে উঠতে পারে না, ঠিক কিভাবে নিজেকে রক্ষা করবে। আমাদের কর্মশালা শিশুদের সুরক্ষায় সহযোগী ভূমিকা রাখবে বলে আশা করছি।

কর্মশালা শেষে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ষষ্ঠ ইন্দ্রিয় পরিবারকে ধন্যবাদ জানান এবং নিজস্ব উদ্যোগে স্কুল কর্মসূচীতে বিষয়টি অন্তর্ভুক্ত করার আশ্বাস দেন।

এমএ জাহাঙ্গীর/রাবি