সাম্প্রদায়িক রাজনীতি কখনোই করবেন না মমতা বন্দোপাধ্যায়। ছবি : সংগৃহীত

মমতা বন্দোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে মুসলিম তোষণের অভিযোগ করেছে বিজেপি। কিন্তু সাংবাদিক বৈঠকে তিনি জানালেন, সাম্প্রদায়িক রাজনীতি কখনোই করবেন না তিনি। একইসঙ্গে জানিয়ে দিলেন, ৩০ মে বৃহস্পতিবার ইফতারেও হাজির থাকবেন। যে গরু দুধ দেয় তার লাথি খাওয়া উচিত।

বাংলায় সাম্প্রদায়িক বিষ ছড়িয়ে লোকসভা ভোটে বিজেপির বাড়বাড়ন্ত হয়েছে বলে এদিন অভিযোগ করেন মমতা। তার দাবি, ভোটে টোটাল হিন্দু-মুসলমান করা হয়েছে। আমি এই থিওরি মানি না। হিন্দু-মুসলিম, শিখ-খৃষ্ট্রান ভাগাভাগি মানি না। এই নির্বাচনে যা টাকার খরচ করেছে যে কোনও কেলেঙ্কারিকে হার মানিয়ে দেবে। দেশটা তো সবার। উগ্র হিন্দুত্ববাদ, উগ্র মৌলবাদ পছন্দ করি না। আমি উগ্রতার বিরুদ্ধে। প্রত্যেকটা ধর্মকে সহনশীল হওয়া উচিত বলে মনে করি।

তার বিরুদ্ধে মুসলিম তোষণের অভিযোগ করা হলেও পরোয়া করেন না বলে জানিয়ে দেন মমতা। তার কথায়,”এসব আমি বিশ্বাস করি না। মানি না। মেরে ফেলতে পারেন। এটাই আমার চিরকালের স্বভাব”।

এরপরই মমতা জানান, ৩১ মে শুক্রবার আবার বৈঠক রয়েছে কালীঘাটে। তার আগে ৩০ মে বৃহস্পতিবার রয়েছে ইফতারে আমন্ত্রিত মুখ্যমন্ত্রী। মমতার কটাক্ষ, মুসলিমদের তোষণ করি। যে গরু দুধ দেয় তার লাথি খাওয়া উচিত। যে ডাকবে যাবো।

আজকের পত্রিকা/কেএইচআর/