আমরা প্রতিদিন এমন অনেক কাজ করে থাকি যা আমাদের হাড় সম্পর্কিত সমস্যাগুলো আরও বাড়িয়ে দেয়। ছবি: সংগৃহীত

স্বাস্থ্য সচেতনতা কথা আসে তখন আমরা কখনই হাড় নিয়ে চিন্তা করি না। আমরা মনে করি হাড়ের সমস্যা নিয়ে বৃদ্ধ বয়সে চিন্তা করলেই হবে। তবে এই ধারণা সম্পূর্ণ ভুল। আমরা প্রতিদিন এমন অনেক কাজ করে থাকি যা আমাদের হাড় সম্পর্কিত সমস্যাগুলো আরও বাড়িয়ে দেয়। যদিও আমরা এই মুহূর্তে তার প্রভাব অনুভব করতে পারি না, তবে পরে এর ফলাফলগুলো ভোগ করতে হবে।

অস্টিওপোরাসিস এমন একটি অবস্থা যা হাড়কে দুর্বল করে এবং ব্যাথা অনুভব হয়। সমস্যা ধীরে ধীরে বাড়তে থাকে এবং বড় আকার ধারণ করে। এখানে দৈনন্দিন কিছু অভ্যাসের কথা বলা হয়েছে যা এই অবস্থা থেকে মুক্তি দেবে-

সূর্যালোক থেকে দূরে থাকা

আমাদের হাড়ের জন্য সূর্যালোক খুবই প্রয়োজন, কারণ এতে আরে ভিটামিন ডি। ছবি: সংগৃহীত

আমাদের হাড়ের জন্য সূর্যালোক খুবই প্রয়োজন, কারণ এতে আরে ভিটামিন ডি। ভিটামিন ডি আমাদের হাড়কে রক্ষা করে এবং আমাদের শরীরকে ক্যালসিয়াম শোষণ করতে সহায়তা করে। আমেরিকান ন্যাশনাল অস্টিওপোরাস ফাউন্ডেশন অনুসারে, ৫০ বছরের কম বয়সী প্রাপ্তবয়স্করা প্রতি দিন ভিটামিন ডি’র ৪০০ থেকে ৮০০ আইইউ প্রয়োজন এবং ৫০ এর উপরে লোকেদের ৮০০ থেকে ১০০০ আইইউ প্রয়োজন।

অলসতা

যদি আপনি শক্তিশালী হাড় তৈরি করতে চান তবে খাটের উপর পড়ে থাকার পরিবর্তে, হাঁটা চলা করুন। ছবি: সংগৃহীত

আপনি আপনার হাড়কে সচল রাখলে হাড় মজবুত হয়। যদি আপনি শক্তিশালী হাড় তৈরি করতে চান তবে খাটের উপর পড়ে থাকার পরিবর্তে, হাঁটা চলা করুন। হাঁটুন, নাচুন, আপনার যা ইচ্ছা তা করুন, শুধু অলস হওয়া এড়িয়ে চলুন।

ধূমপান

ধূমপান অস্টিওপরোসিসের ঝুঁকি বাড়ায়। ছবি: সংগৃহীত

ধূমপান শুধুমাত্র আপনার ফুসফুসের জন্যই ক্ষতিকারক নয়, এটি আপনার হাড়ের জন্যও ক্ষতিকারক। বেশ কিছু গবেষণায় জানা গেছে যে, ধূমপান অস্টিওপরোসিসের ঝুঁকি বাড়ায়। ধূমপান অস্টিওব্লাস্টস (কোষ যা নতুন হাড় তৈরি করে) এবং অস্টিওক্লাস্টস (যা পুরাতন হাড় ভেঙে) কার্যকলাপকে প্রভাবিত করে, যা হাড়কে দুর্বল করে তোলে।

অ্যালকোহল এবং সোডা

অ্যালকোহল এবং সোডা আপনার হাড়কে দুর্বল করে তোলে। ছবি: সংগৃহীত

অ্যালকোহল এবং সোডা আপনার হাড়কে দুর্বল করে তোলে। অত্যধিক পরিমানে অ্যালকোহল পান করায় ক্যালসিয়াম শোষণ জন্য প্রয়োজনীয় হরমোন প্রভাবিত হয়। অতিরিক্ত পরিমানে কার্বোনেটেড পানীয় পান করলেও হাড় দুর্বল হতে থাকে।

ভারসাম্যহীন ডায়েট

যথেষ্ট পরিমানে ক্যালসিয়াম খাদ্য তালিকায় থাকা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। ছবি: সংগৃহীত

ক্যালসিয়াম শক্তিশালী এবং ঘন হাড়ের জন্য খুবই অপরিহার্য। সুতরাং, যথেষ্ট পরিমানে ক্যালসিয়াম খাদ্য তালিকায় থাকা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আমরা ক্যালসিয়ামযুক্ত যেসব খাবার খেয়ে থাকি তা যদি সুষম বণ্টন না হয় তাহলে পুষ্টির ঘাটতি দেখা দিতে পারে।

আজকের পত্রিকা/রিয়া/এমএআরএস