প্রখ্যাত মার্কিন ভাস্কর ও চারুশিল্পী সেড্রিক হাক্যাবি নোবেল লরিয়েট প্রফেসর মুহাম্মদ ইউনূসের একটি প্রতিকৃতি অংকনের উদ্দেশ্যে গত সপ্তাহে ঢাকাস্থ ইউনূস সেন্টারে আগমন করেন। স্ব-স্ব ক্ষেত্রে যুগান্তকারী অবদানের জন্য ভ্যান্ডারবিল্ট কমিউনিটির বিশিষ্ট সদস্যদেরকে সম্মানিত করতে “ভ্যান্ডারবিল্ট ট্রেইলবেøজার সিরিজ” এর অংশ হিসেবে প্রফেসর ইউনূসের পোট্রেইট অংকনের অংশ হিসেবে প্রথম পর্বে প্রতিকৃতি স্কেচ করার জন্য তিনি গত সপ্তাহে ঢাকায় আসেন।

আরলিংটনে অবস্থিত টেক্সাস বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলার অধ্যাপক হাক্যাবি পুরু প্রলেপের ম্যুরাল ও বৃহদাকার প্রতিকৃতি তৈরীর জন্য প্রসিদ্ধ। পৃথিবীর বিভিন্ন বিখ্যাত যাদুঘর যেমন সান ফ্রান্সিসকো মিউজিয়াম অব মডার্ন আর্ট,  হুইটনি মিউজিয়াম অব আমেরিকান আর্ট, বোস্টনের মিউজিয়াম অব ফাইন আর্টস, মিনিয়াপলিস ইনস্টিটিউট অব আর্ট, আর্ট ইনস্টিটিউট অব শিকাগো এবং ডিউক ইউনিভার্সিটিতে অবস্থিত ন্যাশের মিউজিয়াম অব আর্ট-এ তাঁর বিভিন্ন শিল্পকর্ম সংরক্ষিত রয়েছে। অধ্যাপক হাক্যাবি ইয়েল বিশ্ববিদ্যালয় থেকে চারুকলায় স্নাতকোত্তর ডিগ্রী অর্জন করেন।

প্রফেসর ইউনূসের এই “ট্রেইলব্লেজার পোরট্রেইট” ভ্যান্ডারবিল্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবন কার্কল্যান্ড হলে প্রদর্শিত হবে। ভ্যান্ডারবিল্ট  ট্রেইলব্লেজার সিরিজ অর্থাৎ স্ব-স্ব ক্ষেত্রে পথিকৃত ভ্যান্ডারবিল্ট কমিউনিটির যে সকল সদস্য এই বিশ্ববিদ্যালয়ে এবং সার্বিকভাবে সমাজে তাঁদের অবদানের জন্য বিখ্যাত তাঁদেরকে স্মরণীয় করার  উদ্যোগ হিসেবে এই প্রতিকৃতিসমূহ স্থাপন করা হবে।

এই পর্বের প্রতিকৃতির জন্য বিশ্ববিদ্যালয় পাঁচ জনকে বাছাই করেছে। উল্লেখ্য যে, প্রফেসর ইউনূস ১৯৬৫ থেকে ১৯৬৯ সাল পর্যন্ত ভ্যান্ডারবিল্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ছিলেন যখন তিনি এই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অর্থনীতিতে ডক্টরেট ডিগ্রী অর্জন করেন। তিনি ১৯৯৬ সালে সর্বপ্রথম ভ্যান্ডারবিল্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিস্টিংগুইশ্ড অ্যালামনাস পুরস্কার এবং ২০০৭ সালে এই বিশ্ববিদ্যালয়ের সর্বোচ্চ সম্মাননা “নিকল্স-চ্যান্সেলর মেডেল”-এ ভূষিত হন।

আজকের পত্রিকা/এসএমএস